বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > প্রেমিকের সাহায্যে স্বামীকে খুন করে খাটের তলায় পুঁতে দিলেন স্ত্রী
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

প্রেমিকের সাহায্যে স্বামীকে খুন করে খাটের তলায় পুঁতে দিলেন স্ত্রী

  • স্থানীয়রা জানিয়েছেন, গত পরশু থেকে খোঁজ মিলছিল না রামকৃষ্ণবাবুর। এই নিয়ে স্ত্রী স্বপ্নাকে প্রশ্ন করলে তিনি কোনও সদুত্তর দিতে পারেননি।

ফের প্রেমিকের সঙ্গে হাত মিলিয়ে স্বামীকে খুনের অভিযোগ উঠল পশ্চিমবঙ্গে। এবার ঘটনা উত্তর ২৪ পরগনার গাইঘাটা থানা এলাকার। বুধবার গাইঘাটার গোয়ালবাথান গ্রামে স্ত্রীর প্রেমিকের বাড়ির খাটের তলা থেকে মাটি খুড়ে রামকৃষ্ণ সরকার নামে এক ব্যক্তির দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এর পর আটক হয়েছেন মৃতের স্ত্রী স্বপ্না সরকার। পলাতক স্বপ্নাদেবীর প্রেমিক সুদীপ দাস।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, গত পরশু থেকে খোঁজ মিলছিল না রামকৃষ্ণবাবুর। এই নিয়ে স্ত্রী স্বপ্নাকে প্রশ্ন করলে তিনি কোনও সদুত্তর দিতে পারেননি। তাঁর সঙ্গে এলাকারই সুদীপ দাস নামে এক ব্যক্তির বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক রয়েছে। মঙ্গলবার দিনভর রামকৃষ্ণবাবুকে খোঁজাখুঁজি করেন প্রতিবেশীরা। এরই মধ্যে স্বপ্না দেবীর প্রেমিক সুদীপ দাসের বাড়ির কাছে মেলে রক্তের দাগ। এর পরই থানায় খবর দেন গ্রামবাসীরা। 

পুলিশ এসে স্বপ্নাদেবীকে থানায় নিয়ে যান, সেখানে লাগাতার জেরার মুখে বুধবার খুনের কথা স্বীকার করেন তিনি। জানান, প্রেমিকের সঙ্গে হাত মিলিয়ে স্বামীকে খুন করেছেন তিনি। এর পর দেহ পুঁতে দিয়েছেন প্রেমিকের ঘরের খাটের তলায়। 

সঙ্গে সঙ্গে রামকৃষ্ণবাবুর বাড়িতে পৌঁছন পুলিশকর্মীরা। খাট সরিয়ে দেখা যায় সেখানে রয়েছে আলগা মাটি। এর পর মাটি খুড়ে রামকৃষ্ণবাবুর দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। গ্রেফতার করা হয় স্বপ্না সরকারকে। 

বনগাঁর মহকুমার পুলিশ আধিকারিক বিক্রম দস্তিদার জানিয়েছেন, ‘মাটি খুঁড়ে রামকৃষ্ণ সরকারের ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার হয়েছে। মৃতের স্ত্রীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। সুদীপ দাস ও তাঁর মা পলাতক। তাঁদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।’

 

বন্ধ করুন