বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > প্রেমিকের সঙ্গে হাত মিলিয়ে স্বামীকে খুনের অভিযোগ স্ত্রীর বিরুদ্ধে
ধৃত স্ত্রী সারেফা বিবি।
ধৃত স্ত্রী সারেফা বিবি।

প্রেমিকের সঙ্গে হাত মিলিয়ে স্বামীকে খুনের অভিযোগ স্ত্রীর বিরুদ্ধে

  • তদন্তে নেমে পুলিশ প্রথমে নুর আলমের এক ঘনিষ্ঠকে গ্রেফতার করে। তার পর নুর আলম ও সারেফাবিবিকে গ্রেফতার করেন তদন্তকারীরা।

প্রেমিকের সঙ্গে হাত মিলিয়ে স্বামীকে খুনের অভিযোগ তিন সন্তানের জননীর বিরুদ্ধে। ১১ দিন পর এলাকার একটি সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে উদ্ধার হল দেহ। ঘটনা মালদার ইংরেজবাজার থানা এলাকার মোহনপুর গ্রামের। অভিযুক্ত স্ত্রী ও তাঁর প্রেমিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। দোষীদের ফাঁসির দাবি করেছে নিহতের পরিবার।

নিহত সাদিকুল খান (৩৮) পেশায় দিনমজুর। ১০ বছর আগে সারেফা বিবির সঙ্গে বিয়ে হয় তাঁর। দম্পতির ১টি মেয়ে ও ২টি ছেলে রয়েছে। পরিবারের অভিযোগ, সারেফা বিবির সঙ্গে স্থানীয় যুবক নুর আলমের বিবাহবির্ভূত সম্পর্ক ছিল। সেই নিয়ে স্বামী - স্ত্রীর মধ্যে বিবাদ হতো। গত ১০ জানুয়ারি হঠাৎ নিখোঁজ হয়ে যান সাদিকুল। বহু খোঁজাখুঁজি করেও হদিশ না পাওয়ায় ১৬ জানুয়ারি ইংরেজবাজার থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করে পরিবার।

তদন্তে নেমে পুলিশ প্রথমে নুর আলমের এক ঘনিষ্ঠকে গ্রেফতার করে। তার পর নুর আলম ও সারেফাবিবিকে গ্রেফতার করেন তদন্তকারীরা। জেরায় খুনের কথা স্বীকার করেছে নুর আলম। জানিয়েছে, ১০ জানুয়ারি সহযোগীদের নিয়ে , সাদিকুলকে খুন করে সে। তার পর দেহ ফেলে দেয় একটি সেপটিক ট্যাঙ্কে। শুক্রবার দেহটি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পরিবারের তরফে অভিযুক্ত স্ত্রী ও তাঁর প্রেমিকের ফাঁসির দাবি জানানো হয়েছে। সাদিকুলের নাবালিকা মেয়ে জানিয়েছে, মায়ের সঙ্গে রোজ ফোনে কথা বলত নুর আলম। সেকথা কাউকে বললে হাঁসুয়া দিয়ে দুটুকরো করে দেওয়ার ভয় দেখাত। এই ঘটনায় কার্যত অনাথ হয়ে গেল ৩টি শিশু।

 

বন্ধ করুন