বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > স্বামীর জাল ডেথ সার্টিফিকেট দেখিয়ে ২৫ লক্ষ টাকা সরিয়ে কেটে পড়লেন স্ত্রী
বড়ঞা থানা। ফাইল ছবি

স্বামীর জাল ডেথ সার্টিফিকেট দেখিয়ে ২৫ লক্ষ টাকা সরিয়ে কেটে পড়লেন স্ত্রী

  • সরকারি খাতায় মৃত নুরজামাল এর পর পুলিশের দ্বারস্থ হন। স্ত্রীর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ দায়ের করেন। কিন্তু খাতায় কলমে মৃত ব্যক্তির অভিযোগের তদন্ত কী করে করবেন তা ঠিক করতে পারছেন না পুলিশ আধিকারিকরা।

সৌদি প্রবাসী স্বামীর স্বামীর জাল মৃত্যু প্রমাণপত্র দেখিয়ে ব্যাঙ্ক – বিমায় গচ্ছিত টাকা, এমনকী সম্পত্তি হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠল স্ত্রীর বিরুদ্ধে। ঘটনা মুর্শিদাবাদের বড়ঞা থানা এলাকার। স্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানাতে এখন পুলিশ প্রশাসনের দরজায় দরজায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন ‘মৃত’ স্বামী নুরজামাল।

ঘটনা বড়ঞার কুলি গ্রামের। ওই গ্রামের বাসিন্দা নুরজামাল বছর পাঁচেক আগে পেশার তাগিদে সৌদি আরব যান। যাওয়ার সময় সব ঠিকঠাকই ছিল। স্বাভাবিক ভাবেই ব্যাঙ্কে গচ্ছিত টাকা ও বিমান উত্তরাধিকারী ছিলেন তাঁর স্ত্রী শাহিনা খাতুন। দেশ ছাড়ার কিছুদিন পর থেকে স্বামীর সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন নুরজামান। স্ত্রী ঘর ছেড়েছেন ভেবে আর সৌদি থেকে ফেরারও উদ্যোগ দেখাননি তিনি। টানা ৫ বছর কাজ করে মাসখানের আগে তিনি বাড়ি ফিরে যান ব্যাঙ্কে। গিয়ে জানতে পারেন, ব্যাঙ্কে গচ্ছিত তাঁর সমস্ত টাকা তুলে নিয়েছেন স্ত্রী? কিন্তু কী ভাবে তা সম্ভব হল। ব্যাঙ্কের ম্যানেজার জানান, স্ত্রী শাহিনা খাতুন নুরজামালের মৃত্যু প্রমাণপত্র দেখিয়ে টাকা তুলে নিয়ে গিয়েছেন। এর পর তিনি জানতে পারেন, একই ভাবে বিমার টাকাও হাতিয়ে নিয়েছেন স্ত্রী। এমনকী জাল ডেথ সার্টিফিকেট দেখিয়ে নিজের নামে লিখিয়ে নিয়েছেন যাবতীয় সম্পত্তি।

সরকারি খাতায় মৃত নুরজামাল এর পর পুলিশের দ্বারস্থ হন। স্ত্রীর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ দায়ের করেন। কিন্তু খাতায় কলমে মৃত ব্যক্তির অভিযোগের তদন্ত কী করে করবেন তা ঠিক করতে পারছেন না পুলিশ আধিকারিকরা। নিজেকে ফের জীবিত প্রমাণ করতে প্রশাসনিক আধিকারিকদের দরজায় দরজায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন তিনি।

‘মৃত’ নুরজামাল বলেন, ‘৫ বছর পর ফিরে দেখি স্ত্রী বাড়িতে নেই। তার পর ব্যাঙ্কে গিয়ে আমার মাথায় হাত। প্রায় ২৫ লক্ষ টাকা সরিয়েছে ও। আমার স্ত্রীর বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক ছিল। আমি প্রশাসনের কাছে সুবিচার দাবি করেছি।’

 

বন্ধ করুন