বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ক্ষমতায় এলে বাংলায় কি 'লাভ জিহাদ' ও গো-হত্যা বিরোধী আইন আনবে BJP? জবাব বিজয়বর্গীয়ের
রাজ্যে বিজেপির পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
রাজ্যে বিজেপির পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

ক্ষমতায় এলে বাংলায় কি 'লাভ জিহাদ' ও গো-হত্যা বিরোধী আইন আনবে BJP? জবাব বিজয়বর্গীয়ের

  • বাংলায় বিজেপি ক্ষমতায় আসবে কিনা, তা সময় বলবে। তার আগেই মন্তব্য কৈলাস বিজয়বর্গীয়ের।

বাংলায় বিজেপি ক্ষমতায় আসবে কিনা, তা সময় বলবে। তবে ক্ষমতায় আসার পর প্রয়োজন হলে বঙ্গেও গো-রক্ষা এবং 'লাভ জিহাদ' নিয়ে বাংলায় আইন প্রণয়ন করতে পারে বিজেপি। এমনটাই জানালেন রাজ্যে বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়।

'হিন্দুস্তান টাইমস'-এর 'ন্যাশনাল পলিটিকাল এডিটর' সুনেত্রা চৌধুরীর সঙ্গে ফোনে একান্ত সাক্ষাৎকারে বাংলায় দলের কৌশল, তৃণমূল কংগ্রেসের শাসন, বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নড্ডার কনভয়ে হামলার মতো বিষয়গুলি নিয়ে মুখ খোলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। সেখানে তাঁকে প্রশ্ন করা হয়, ক্ষমতায় এলে বাংলায় গো-রক্ষা এবং 'লাভ জিহাদ' নিয়ে বাংলায় আইন প্রণয়ন করা হবে কিনা?

সেই প্রশ্নের জবাবে বিজয়বর্গীয় বলেন, 'দেখুন, বাংলায় এই বিষয়টি বাংলায় এখনও উত্থাপন হয়নি। তবে যেখানে এই ধরনের আইনের প্রয়োজনীয়তা আছে বলে মনে হবে, সেখানে এই ধরনের আইন নিয়ে আসবে বিজেপি। আমাদের যদি মনে হয়, বাংলায় এই ধরনের আইনের প্রয়োজন আছে, তাহলে আমরা তা করতে (আইন প্রণয়ন) করতে পিছপা হব না।'

এমনিতে বিজেপি-শাসিত একাধিক রাজ্যে গো-হত্যা বিরোধী আইন আছে। সেই তালিকায় সর্বশেষ যুক্ত হয়েছে কর্নাটক। বি এস ইয়েদুরাপ্পার সরকার সেই নয়া বিল পাস করিয়েছে। একইভাবে উত্তরপ্রদেশেও 'লাভ জিহাদ' আইন প্রণয়ন করা হয়েছে। মধ্যপ্রদেশেও সেই আইন আনা হবে। ইতিমধ্যে 'লাভ জিহাদ' বিরোধী আইনের খসড়া তৈরির জন্য একটি কমিটি গঠন করেছে হরিয়ানা।

তবে বাংলায় দুই আইন প্রণয়নের বিষয়ে বিজেপি যে আক্রমণাত্মক মনোভাব নিচ্ছে না, তাতে অবাক নয় ওয়াকিবহল মহল। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষেকদের মতে, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশের ধাঁচে রাজনীতি বাংলায় সম্ভব নয়। শুধু ধর্মীয় মেরুকরণের সহায়তায় বাংলার ভোটের বৈতরণী পার হওয়া দুষ্কর। উলটে গো-হত্যা বিরোধী এবং 'লাভ জিহাদ' বিরোধী আইন নিয়ে ভোটের আগে বেশি জোরদার প্রচার করলে হিতে-বিপরীত হতে পারে বিজেপির। সেক্ষেত্রে সংখ্যালঘু ভোট তো হাতছাড়া হবেই, সঙ্গে হিন্দু ভোটব্যাঙ্কেও থাবা বসবে। তাই আপাতত দুই আইন নিয়েই নরমে-গরমে এগোতে চাইছে গেরুয়া শিবির।

বন্ধ করুন