বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > More cash benefits in Bengal: বিধবা ভাতা ও লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের সুবিধা একসঙ্গে পাওয়া যাবে, বড় ঘোষণা মমতার

More cash benefits in Bengal: বিধবা ভাতা ও লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের সুবিধা একসঙ্গে পাওয়া যাবে, বড় ঘোষণা মমতার

কৃষ্ণনগরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে মমতা বলেন, ‘আগে নিয়ম ছিল যারা লক্ষ্মীর ভাণ্ডার পাবেন তারা বিধবা ভাতা পাবেন না বা যারা বিধবা ভাতা পাচ্ছেন তারা লক্ষ্মীর ভাণ্ডার পাবেন না। কিন্তু আমি এটা করে দিয়েছি। আমার মায়েরা, দিদিরা লক্ষ্মীর ভাণ্ডার এবং বিধবা ভাতার সুযোগ একসঙ্গে পাবেন। এটা তাদের প্রয়োজন রয়েছে।’

চলতি মাসের ১ তারিখ থেকে শুরু হয়েছে দুয়ারে সরকার। নভেম্বর মাস ধরে গোটা রাজ্যে চলবে এই কর্মসূচি। এরই মধ্যে আজ বুধবার কৃষ্ণনগরে সভায় যোগ দিয়ে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার নিয়ে বড় ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যারা বিধবা ভাতা পাচ্ছেন তারাও পাবেন লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের সুবিধা। উল্লেখ্য, মুখ্যমন্ত্রী আগেই জানিয়েছিলেন যারা বিধবা ভাতা পাচ্ছেন তারা লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের সুবিধা পাবেন। এদিন আরও একবার সেই কথা ঘোষণা করে কার্যত শিলমোহর দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

এদিন সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে মমতা বলেন, ‘আগে নিয়ম ছিল যারা লক্ষ্মীর ভাণ্ডার পাবেন তারা বিধবা ভাতা পাবেন না বা যারা বিধবা ভাতা পাচ্ছেন তারা লক্ষ্মীর ভাণ্ডার পাবেন না। কিন্তু আমি এটা করে দিয়েছি। আমার মায়েরা, দিদিরা লক্ষ্মীর ভাণ্ডার এবং বিধবা ভাতার সুযোগ একসঙ্গে পাবেন। এটা তাদের প্রয়োজন রয়েছে। দুয়ারে সরকার শুরু হয়েছে আপনারা সেখানে গিয়ে আবেদন করুন।’

এছাড়াও রাজ্য সরকারের একাধিক প্রকল্পের সুবিধা পাওয়ার জন্য দুয়ারে সরকারের শিবিরে গিয়ে আবেদন করার আর্জি জানান মমতা। তিনি বলেন, ‘স্বাস্থ্য সাথী কার্ড নিয়ে না পেয়ে থাকলে দুয়ারে সরকারের শিবিরে গিয়ে আবেদন করুন।’ এছাড়াও ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশোনার সুবিধার জন্য ক্রেডিট কার্ডের সুবিধার কথাও উল্লেখ করেন মমতা।

প্রসঙ্গত, রাজ্যের ভাঁড়ারে টাকা নেই বলে অভিযোগ তুলেছে বিজেপি। যার ফলে আগামী দিনে রাজ্য সরকার কর্মচারীদেরও বেতন দিতে পারবে না বলেও বিজেপি আশঙ্কা প্রকাশ করেছে। তবে বিজেপির সেই অভিযোগে আমল না দিয়ে মমতা এদিন স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, রাজ্যের আয়ের কোনও সমস্যা হবে না। যেমন করে হোক রাজ্য আয়ের ব্যবস্থা করবে বলে জানান মমতা। একই সঙ্গে এদিনও কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ১০০ দিনের প্রকল্পের টাকা না দেওয়ার অভিযোগ তোলেন তিনি। মমতা এদিনের সভায় বিজেপির বিরুদ্ধে মানুষকে ভুল বোঝানোর অভিযোগ করেছেন।

বন্ধ করুন