বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 'লক্ষ্মীর ভাণ্ডার'-এর ফর্ম তুলতে গিয়ে হুড়োহুড়ি, পদপিষ্ট বেশ কয়েকজন মহিলা
মুরারইয়ে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পের ফর্ম তুলতে মহিলাদের ভিড়। 
মুরারইয়ে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পের ফর্ম তুলতে মহিলাদের ভিড়। 

'লক্ষ্মীর ভাণ্ডার'-এর ফর্ম তুলতে গিয়ে হুড়োহুড়ি, পদপিষ্ট বেশ কয়েকজন মহিলা

  • আহত মহিলাদের স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। অনেকে মোবাইল ফোন, ব্যাগ হারিয়ে গিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। তারাই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পের ফর্ম বিলির প্রথম দিনেই চরম বিশৃঙ্খলা দেখল বীরভূম। জেলার মুরারইয়ে ফর্ম বিলির জন্য হুড়োহুড়িতে পদপিষ্ট হলেন বেশ কয়েকজন মহিলা। এই ঘটনার জেরে ফর্ম বিলি বন্ধ হয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বেশ কয়েজন আহত মহিলাকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে।

সোমবার থেকে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পের ফর্ম বিলি হবে বলে আগেই ঘোষণা করেছিল পঞ্চায়েত। সেই মতো সোমবার সকালে মুরারই অক্ষয়কুমার ইন্সটিটিউটের সামনে ভিড় করেন বহু মানুষ। সকাল ১০টায় স্কুলের গেট খুলতেই ভিতরে ঢোকার জন্য হুড়োহুড়ি শুরু হয়। ভিড়ের চাপে মাটিতে পড়ে যান কয়েকজন মহিলা। তাদের পাড়িয়েই ভিতরে ঢোকার চেষ্টা করেন অনেকে। এতে পদপিষ্ট হন বেশ কয়েকজন।

আহত মহিলাদের স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। অনেকে মোবাইল ফোন, ব্যাগ হারিয়ে গিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। তারাই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এই ঘটনায় প্রশাসনের তৎপরতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। ভিড় জমছে দেখেও কেন আগাম কোনও পদক্ষেপ করা হল না প্রশ্ন উঠছে তা নিয়েও। ঘটনায় তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে বিজেপি। স্থানীয় এক বিজেপি নেতার কথায়, ভোটের আগে সমস্ত মহিলাকে মাসিক ভাতা দেবেন বলে ঘোষণা করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এখন বাছবিচার কেন? কেন ফর্ম পূরণ করতে গিয়ে নিদারুণ অভিজ্ঞতার মুখে পড়তে হবে বাড়ির মেয়ে-বউদের?

 

বন্ধ করুন