বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বাইক থামিয়ে তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের কর্মীকে গুলি, অধরা দুষ্কৃতীরা
'বাইক থামিয়ে তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের কর্মীকে গুলি' অধরা দুষ্কৃতীরা। প্রতীকী ছবি।
'বাইক থামিয়ে তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের কর্মীকে গুলি' অধরা দুষ্কৃতীরা। প্রতীকী ছবি।

বাইক থামিয়ে তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের কর্মীকে গুলি, অধরা দুষ্কৃতীরা

  • তার পরিচয় জানার পাশাপাশি পুলিশ দুষ্কৃতীদের খোঁজ শুরু করেছেন। তবে এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় কারা জড়িত রঘুনাথগঞ্জ থানার পুলিশ তা এখনও জানতে পারেনি।

মুর্শিদাবাদে দুষ্কৃতীদের গুলিতে গুরুতর জখম হলেন অজ্ঞাত পরিচয় এক ব্যক্তি। রাস্তায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই ব্যক্তিকে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিশ। সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ওই ব্যক্তি। তার পরিচয় জানা না গেলেও তিনি জেলার রঘুনাথগঞ্জের তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত বলেই প্রাথমিকভাবে মনে করছে পুলিশ। তার পরিচয় জানার পাশাপাশি পুলিশ দুষ্কৃতীদের খোঁজ শুরু করেছেন। তবে এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় কারা জড়িত রঘুনাথগঞ্জ থানার পুলিশ তা এখনও জানতে পারেনি।

পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে, রবিবার রাতে এই ঘটনা ঘটেছে। বাইকে করে যাওয়ার সময় দুষ্কৃতীরা তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। প্রাথমিকভাবে পুলিশ জানতে পেরেছে, ওই ব্যক্তি মির্জাপুরে অবস্থিত সোনার বাংলা নামে একটি সিমেন্ট কারখানার কর্মী ছিলেন। এর পাশাপাশি তিনি কারখানার তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন। ঘটনাটি ঘটেছে খোজার পাড়া এলাকায়। প্রাথমিকভাবে কারখানা কতৃপক্ষ এবং অন্যান্য শ্রমিকদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পেরেছে, ওই ব্যক্তির বাড়ি রঘুনাথগঞ্জ থানা এলাকার দক্ষিণ গ্রামে। বাইকে করে বাড়ির দিকে যাওয়ার সময় দুষ্কৃতীরা তার পথ আটকায়। এরপরে তার পায়ে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। ঘটনার খবর পাওয়ার পর পুলিশ তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়। বর্তমানে জঙ্গিপুর মহকুমা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছে।

তবে তিনি যেহেতু তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন তাই এই ঘটনার সঙ্গে বিরোধীদের জড়িত থাকার অভিযোগ অনেকেই তুলছেন। আবার সম্প্রতি মুর্শিদাবাদে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল প্রকাশ্যে এসেছে একাধিক ঘটনা। ফলে কারা এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে তার খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ।

বন্ধ করুন