বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বিশ্বকর্মার বাহনদের পুজো উত্তরবঙ্গে, তাদের জন্য বিশেষ মেনু বেঙ্গল সাফারিতে
বেঙ্গল সাফারিতে কুনকি হাতিদের পুজো হল এদিন।

বিশ্বকর্মার বাহনদের পুজো উত্তরবঙ্গে, তাদের জন্য বিশেষ মেনু বেঙ্গল সাফারিতে

  • শুধু বেঙ্গল সাফারি পার্কেই নয়, উত্তরবঙ্গের একাধিক জাতীয় উদ্য়ানেও কুনকি হাতি পুজো করার চল রয়েছে। বনবস্তির বাসিন্দারাও এই পুজোতে অংশ নেন। এদিন তাদের লবণ, নারকেল, কলা, নানা ধরনের ফল দেওয়া হয়। তবে বর্তমানে জঙ্গল বন্ধ থাকার জেরে কুনকি হাতিদের এখন ছুটি। 

প্রতিবছরই এই দিনটার জন্য় অপেক্ষা করে থাকে ওরাও। ওরা যে খোদ বিশ্বকর্মার বাহন। সেই বিশ্বকর্মার বাহন হাতিকে পুজোর প্রচলন রয়েছে উত্তরবঙ্গের বনদফতরের আওতায় থাকা বিভিন্ন এলাকায়। তবে জঙ্গলের হাতিকে ডেকে নিয়ে এসে পুজো করার মতো দুঃসাহস ঠিক নয়। বনদফতরের কাছে যে কুনকি হাতি রয়েছে সেগুলিই পুজো করা হয়। এদিন তাদের জন্য বিশেষ মেনুও থাকে। 

শিলিগুড়ির বেঙ্গল সাফারি পার্কেও বিশ্বকর্মা পুজোর দিন হাতি পুজোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। দুই কুনকি হাতি উর্মিলা ও লক্ষ্মীকে পুজো করা হয় এদিন। পুজো বলে কথা। একেবারে সকাল সকাল স্নান করিয়ে তাদের আনা হয় পুরোহিতের সামনে।  এরপর বৈদিক মন্ত্রোচ্চারণের মাধ্যমে পুজো করা হয় তাদের। 

আর পুজোর পরে এদিন তাদের জন্য থাকে বিশেষ মেনু। তাদের পছন্দের ফলমূল সাজিয়ে দেওয়া হয় হাতিদের সামনে। বেশ তৃপ্তি করে খায়। সেই তৃপ্তি যেন ছড়িয়ে পড়ে আধিকারিকদের মধ্যেও। বছরভর এই দুই কুনকি হাতি পর্যটকদের পিঠে চাপিয়ে বেঙ্গল সাফারির মধ্যে ঘুরে বেড়ায়। বছরভরই তাদের যত্নআত্তি করেন দফতরের কর্মীরা। তবে এদিন যেন দিনটা তাদের জন্য। তাদের তুষ্ট করার জন্য চেষ্টার কোনও ত্রুটি রাখেননি কর্মীরা।

তবে শুধু বেঙ্গল সাফারি পার্কেই নয়, উত্তরবঙ্গের একাধিক জাতীয় উদ্য়ানেও কুনকি হাতি পুজো করার চল রয়েছে। বনবস্তির বাসিন্দারাও এই পুজোতে অংশ নেন। এদিন তাদের লবণ, নারকেল, কলা, নানা ধরনের ফল দেওয়া হয়। তবে বর্তমানে জঙ্গল বন্ধ থাকার জেরে কুনকি হাতিদের এখন ছুটি। শুধু খাওয়া দাওয়া আর চুটিয়ে ছুটি কাটাচ্ছে কুনকি হাতির দল। 

বন্ধ করুন