বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ৩৬ লাখ টাকা জালিয়াতির অভিযোগে ধৃত মালদহের এক যুবক
 (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
 (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

৩৬ লাখ টাকা জালিয়াতির অভিযোগে ধৃত মালদহের এক যুবক

তদন্তকারীদের দাবি, ই–ওয়ালেট সংস্থার প্রোগ্রামিং পাল্টে জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে এই যুবকের বিরুদ্ধে।

লক্ষাধিক টাকা ‌জালিয়াতির অভিযোগে গ্রেফতার এক যুবক। প্রায় ৩৬ লাখ টাকা জালিয়াতির অভিযোগ রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত যুবক মালদহের বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। কলকাতা পুলিশের সাইবার ক্রাইম বিভাগের তদন্তকারীরা মালদহ থেকেই তাঁকে গ্রেফতার করেছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃত এই যুবকের নাম পার্থসারথি সাহা। তদন্তকারীদের দাবি, ই–ওয়ালেট সংস্থার প্রোগ্রামিং পালটে জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে এই যুবকের বিরুদ্ধে। পুলিশ জানতে পেরেছে, একটি ই–ওয়ালেট সংস্থায় পার্টনার হিসেবে কাজ করতেন পার্থ। তাঁর প্রধান কাজ ছিল, সংস্থার ব্যবসা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরা। এই কাজের বিনিময়ে পার্থর সংস্থার কাছ থেকে লভ্যাংশ বাবদ কমিশন পাওয়ার কথা। সেইসঙ্গে পার্থর মার্কেটিংয়ের বাবদ যতজন ওয়ালেট ব্যবহার করবেন, সেই ব্যবহারকারীদের যে টাকা ঢুকত, তার এক শতাংশ পার্থের পাওয়ার কথা। গত ১ মাস কোম্পানি লক্ষ্য করছিল, কোনও টাকাই ওয়ালেটে জমা পড়ছে। তাতে সন্দেহ হওয়ার কোম্পানির কর্তৃপক্ষের তরফে সিস্টেম পরীক্ষা করে দেখা হয়। পরীক্ষা করে দেখা যায়, পুরো সিস্টেমটাই কন্ট্রোল করছেন পার্থ। তখনই কর্তৃপক্ষ বুঝে যান, পুরো জালিয়াতির পিছনে কার হাত রয়েছে।

এরপরই গোটা বিষয়টি কলকাতা পুলিশের সাইবার ক্রাইম বিভাগকে জানায় ই–ওয়ালেট সংস্থা। তদন্তকারীরা জানতে পারেন, গত এক মাস ধরে ওয়ালেট সংস্থার টাকা নিজের বিভিন্ন ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ট্রান্সফার করেছেন পার্থ। এরপরই পার্থকে ধরতে পরিকল্পনা শুরু করে সাইবার ক্রাইম বিভাগ। মালদহ থেকে তাঁকে গ্রেফতার করে ট্রানজিট রিম্যান্ডে কলকাতায় আনা হচ্ছে।

বন্ধ করুন