প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

মহিষাদলে কলকাতা থেকে ফেরা যুবকের দেহে মিলল Covid-19 সংক্রমণ

  • এর পরই যুবককে করোনা হাসপাতালে ভর্তি করেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। তাঁর মা-বাবা, স্ত্রী ও সন্তানকে পাঠানো হয়েছে চণ্ডীপুরে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে।

পূর্ব মেদিনীপুরে ফের মিলল করোনা আক্রান্তের খোঁজ। এবার আক্রান্ত ২৬ বছরের এক যুবক। মহিষাদলের বাসিন্দা ওই যুবক কলকাতায় একটি মিষ্টান্ন ভাণ্ডারে কর্মরত তিনি। বৃহস্পতিবার তাঁর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। যুবককে করোনা হাসপাতালে ভর্তি করে পরিজনদের কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়েছে প্রশাসন। 

 প্রশাসন সূত্রের খবর, মহিষাদলের দক্ষিণ শ্রীরামপুর গ্রামের বাসিন্দা ওই যুবক কর্মসূত্রের দীর্ঘদিন কলকাতায় থাকতেন। লকডাউন শুরু হয়ে যাওয়ায় বাড়ি ফিরতে পারেননি তিনি। মিষ্টির দোকানের ওই কর্মী গত রবিবার একটি গাড়িতে করে নন্দকুমার পৌঁছন। সেখান থেকে হেঁটে পৌঁছন নিজের গ্রামে। খবর পেয়ে বাড়িতে হাজির হন স্বাস্থ্যকর্মীরা। যুবকের লালারসের নমুনা সংগ্রহ করে পাঠানো হয় পরীক্ষায়। বৃহস্পতিবার জানা যায়, যুবক করোনা আক্রান্ত। 

এর পরই যুবককে করোনা হাসপাতালে ভর্তি করেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। তাঁর মা-বাবা, স্ত্রী ও সন্তানকে পাঠানো হয়েছে চণ্ডীপুরে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে। কলকাতায় ও বাড়ি ফেরার পথে তিনি কার কার সংস্পর্শে এসেছিলেন তা জানতে তৎপর হয়েছে প্রশাসন। 

পূর্ব মেদিনীপুরের বিস্তীর্ণ এলাকা থেকে বিক্ষিপ্তভাবে করোনা আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। তমলুক, এগরায় খোঁজ মিলেছে রোগীর। কিন্তু মহিষাদলে এই প্রথম করোনা আক্রান্তের খোঁজ মেলার পর এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে। শুক্রবার এই খবর জানাজানি হতে অনেকটাই শুনশান পথঘাট। 

 

বন্ধ করুন