জ্বলছে আকবরের বসত
জ্বলছে আকবরের বসত

স্ত্রী - মেয়েকে খুন করে বাড়ির উঠোনে পুঁতে দিল যুবক, অভিযুক্তের বাড়িতে আগুন

  • বৃহস্পতিবার সকাল থেকে মেয়ের কান্নার আওয়াজ না পেয়ে সন্দেহ হয় স্থানীয়দের। ডাকাডাকি করলে নুরজাহানের সাড়া পাননি তারা।

পারিবারিক বিবাদের জেরে স্ত্রী ও ২ মাসের শিশুকন্যাকে খুন করে বাড়ির পাশেঅ পুঁতে দিল এক ব্যক্তি। জানতে পেরে অভিযুক্তর ঘর ভাঙচুর করে আগুন ধরিয়ে দেয় স্থানীয়রা। ঘটনা উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুরের সুজালি গ্রামের। পুলিশ এসে মা ও মেয়ের দেহ উদ্ধার করেছে। অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি চলছে।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বুধবার রাতে আকবর ও তাঁর স্ত্রী নুরজাহানের মধ্যে ঝগড়ার আওয়াজ পাওয়া যাচ্ছিল। মেয়ে হওয়ায় কিছুদিন ধরে চরমে পৌঁছেছিল অশান্তি। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে মেয়ের কান্নার আওয়াজ না পেয়ে সন্দেহ হয় স্থানীয়দের। ডাকাডাকি করলে নুরজাহানের সাড়া পাননি তারা। বাড়ির উঠোনে মাটি খোঁড়া দেখে তাঁদের সন্দেহ হয়। এর পরই জমতে শুরু করে লোক। পুলিশ এসে পৌঁছয়। ঘটনাস্থলে পৌঁছন এক ম্যাজিস্ট্রেট পর্যায়ের আধিকারিক। মাটি খুলে মেলে মা নুরজাহান ও তাঁর ২ মাসের মেয়ে রেজওয়ানার দেহ।

এর পরই পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। আকবরের বাড়ি ভাঙচুর করে আগুন ধরিয়ে দেন হলুগছ গ্রামের বাসিন্দারা। তাঁদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে রেজওয়ানার ওপর অত্যাচার চালাচ্ছিল আকবর ও তার বাড়ির লোকজন।

ঘটনার পর থেকে পলাতক আকবর ও তাঁর পরিজনরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গ্রামে বসেছে পুলিশ পিকেট।



বন্ধ করুন