ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

৫০ জন গ্রেফতার, সাসপেন্ড ৬৫ জন, রেশন দুর্নীতি নিয়ে সাফাই দিয়ে বললেন আলাপন

  • তিনি বলেন, ‘আমরা ১০ কোটি মানুষকে রেশন দিয়েছি। যাদের রেশন কার্ড রয়েছে তাদের ছাড়াও ৬৫ লক্ষ মানুষকে কুপনের মাধ্যমে রেশন দেওয়া হয়েছে।’

পশ্চিমবঙ্গে ১০ কোটি মানুষের কাছে রেশন পৌঁছে দিয়েছে রাজ্য সরকার। মঙ্গলবার নবান্নে বসে এমনটাই দাবি করলেন পশ্চিমবঙ্গের স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, বিধি ভাঙায় অন্তত ৪০০ জন রেশন ডিলারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে প্রশাসন। কিন্তু প্রশ্ন হল, খাদ্যমন্ত্রী ও খাদ্যসচিব থাকতে স্বরাষ্ট্রসচিবকে কেন এই তথ্য প্রকাশ করতে হল?

গত এপ্রিল থেকে রেশনে বিনামূল্যে খাদ্যসামগ্রী দেওয়া শুরু করে রাজ্য সরকার। আর তা শুরু হতেই জায়গায় জায়গায় দুর্নীতির অভিযোগে শুরু হয় বিক্ষোভ। পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছয় যে সরিয়ে দেওয়া হয় খাদ্যসচিবকে। কিন্তু তাতেও রেশন ব্যবস্থার হাল ফেরেনি বলে দাবি বিরোধীদের। মঙ্গলবারও বীরভূম, বর্ধমান-সহ একাধিক জেলায় নির্দিষ্ট পরিমানে রেশন সামগ্রী না পাওয়ায় বিক্ষোভ দেখান সাধারণ মানুষ। বীরভূমে গ্রেফতার করা হয়েছে এক রেশন ডিলারকে।

রেশন দুর্নীতির প্রতিবাদে মঙ্গলবার থেকে পথে নেমেছে বিজেপি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে পোস্টারের  মাধ্যমে সাধারণ মানুষের কাছে দলের বক্তব্য পৌঁছে দিচ্ছেন বিজেপি কর্মীরা। সঙ্গে তুলেছেন দুর্নীতি বন্ধ করে স্বচ্ছভাবে রেশন বণ্টনের দাবি। 

এসবের মধ্যেই মঙ্গলবার রেশন দুর্নীতি নিয়ে আরেক দফা সাফাই দেওয়ার চেষ্টা করল রাজ্য প্রশাসন। এবার তথ্য তুলে ধরলেন স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘আমরা ১০ কোটি মানুষকে রেশন দিয়েছি। যাদের রেশন কার্ড রয়েছে তাদের ছাড়াও ৬৫ লক্ষ মানুষকে কুপনের মাধ্যমে রেশন দেওয়া হয়েছে।’

স্বরাষ্ট্রসচিব জানিয়েছেন, রেশন দুর্নীতির অভিযোগে ৩৫৯ জন রেশন ডিলারকে শো-কজ করা হয়েছে। ৬৫ জনকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। ২৫ জনকে জরিমানা ও ৫০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  গত চার দিনে ২১ জন রেশন ডিলারকে শো কজ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। 

পশ্চিমবঙ্গে ১০ কোটি মানুষের কাছে রেশন পৌঁছে দিয়েছে রাজ্য সরকার। মঙ্গলবার নবান্নে বসে এমনটাই দাবি করলেন পশ্চিমবঙ্গের স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, বিধি ভাঙায় অন্তত ৪০০ জন রেশন ডিলারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে প্রশাসন। কিন্তু প্রশ্ন হল, খাদ্যমন্ত্রী ও খাদ্যসচিব থাকতে স্বরাষ্ট্রসচিবকে কেন এই তথ্য প্রকাশ করতে হল?

গত এপ্রিল থেকে রেশনে বিনামূল্যে খাদ্যসামগ্রী দেওয়া শুরু করে রাজ্য সরকার। আর তা শুরু হতেই জায়গায় জায়গায় দুর্নীতির অভিযোগে শুরু হয় বিক্ষোভ। পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছয় যে সরিয়ে দেওয়া হয় খাদ্যসচিবকে। কিন্তু তাতেও রেশন ব্যবস্থার হাল ফেরেনি বলে দাবি বিরোধীদের। মঙ্গলবারও বীরভূম, বর্ধমান-সহ একাধিক জেলায় নির্দিষ্ট পরিমানে রেশন সামগ্রী না পাওয়ায় বিক্ষোভ দেখান সাধারণ মানুষ। বীরভূমে গ্রেফতার করা হয়েছে এক রেশন ডিলারকে।

রেশন দুর্নীতির প্রতিবাদে মঙ্গলবার থেকে পথে নেমেছে বিজেপি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে পোস্টারের  মাধ্যমে সাধারণ মানুষের কাছে দলের বক্তব্য পৌঁছে দিচ্ছেন বিজেপি কর্মীরা। সঙ্গে তুলেছেন দুর্নীতি বন্ধ করে স্বচ্ছভাবে রেশন বণ্টনের দাবি। 

এসবের মধ্যেই মঙ্গলবার রেশন দুর্নীতি নিয়ে আরেক দফা সাফাই দেওয়ার চেষ্টা করল রাজ্য প্রশাসন। এবার তথ্য তুলে ধরলেন স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘আমরা ১০ কোটি মানুষকে রেশন দিয়েছি। যাদের রেশন কার্ড রয়েছে তাদের ছাড়াও ৬৫ লক্ষ মানুষকে কুপনের মাধ্যমে রেশন দেওয়া হয়েছে।’

স্বরাষ্ট্রসচিব জানিয়েছেন, রেশন দুর্নীতির অভিযোগে ৩৫৯ জন রেশন ডিলারকে শো-কজ করা হয়েছে। ৬৫ জনকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। ২৫ জনকে জরিমানা ও ৫০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  গত চার দিনে ২১ জন রেশন ডিলারকে শো কজ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। 

 

বন্ধ করুন