বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > উচ্চ প্রাথমিকের ইন্টারভিউতে গরহাজির প্রায় ১০ শতাংশ চাকরিপ্রার্থী
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

উচ্চ প্রাথমিকের ইন্টারভিউতে গরহাজির প্রায় ১০ শতাংশ চাকরিপ্রার্থী

  • তাঁর মতে, নিয়োগপ্রক্রিয়া দীর্ঘদিন ধরে চলায় অনেকে অন্য জায়গায় চাকরি পেয়ে গিয়ে থাকতে পারেন। তবে সেটা ১০ শতাংশ হতে পারে না।

উচ্চ প্রাথমিকের নিয়োগের ইন্টারভিউতে ডাক না পেয়ে একদিকে যখন হাইকোর্টে মামলা লড়ছেন কয়েকশ’ যুবক-যুবতী তখন ইন্টারভিউতে ডাক পেয়েও এলেন না প্রায় ১২০০ চাকরিপ্রার্থী। যা মোট ডাক পাওয়া প্রার্থীর সংখ্যার প্রায় ১০ শতাংশ। এই প্রবণতায় প্রশ্ন উঠছে, তবে কি শিক্ষকতার প্রতি উৎসাহ কমছে যুব সমাজের?

উচ্চ প্রাথমিকের ১৪,৩৩৯টি শূন্যপদের জন্য ১৫,৪০৬ জন প্রার্থীকে ইন্টারভিউতে ডেকেছিল মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। ইন্টারভিউর জন্য টেটে যোগ্য প্রার্থীদের ফর্ম ফিল আপ হয়েছিল গত জানুয়ারিতে। গত ১৯ জুলাই থেকে বুধবার পর্যন্ত চলেছে ইন্টারভিউ। আর তাতে ডাক পেয়েও এখনো পর্যন্ত গরহাজির হয়েছেন প্রায় ১,২০০ জন।

কমিশনের চেয়ারম্যান শুভঙ্কর সরকার জানিয়েছেন, সঠিক সংখ্যাটা কয়েকদিনের মধ্যে জানা যাবে। তবে যত প্রার্থী গরহাজির বলে শুনতে পাচ্ছি তা স্বাভাবিক নয়। এরা কেন ইন্টারভিউ দিলেন না তা জানতে হবে।

তাঁর মতে, নিয়োগপ্রক্রিয়া দীর্ঘদিন ধরে চলায় অনেকে অন্য জায়গায় চাকরি পেয়ে গিয়ে থাকতে পারেন। তবে সেটা ১০ শতাংশ হতে পারে না।

তবে সরকারি চাকরির ইন্টারভিউতে গরহাজিরা কোনও নতুন কথা নয়। ২০১৮-১৯ সালে একাদশ – দ্বাদশ শ্রেণির নিয়োগের প্রায় ১২০০ চাকরিপ্রার্থী ডাক পেয়েও ইন্টারভিউতে অনুপস্থিত ছিলেন।

বিশেষজ্ঞদের একাংশের মতে, শিক্ষকতার প্রতি ঝোঁক কমছে মেধাবী পড়ুয়াদের। এর পিছনে মূল কারণ শিক্ষাক্ষেত্রে অযাচিত রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ ও দুর্বল পরিকাঠামো। সে সব ঝামেলা পোহানোর থেকে অন্য পেশায় যাওয়া মঙ্গল বলে মনে করছে তারা।

 

বন্ধ করুন