বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > বন্ধুদের মধ্যে বচসার সময় বুক-তলপেটে লাথি, মৃত্যু ১৪ বছরের কিশোরের
বন্ধুর সঙ্গে বচসার মধ্যে বুক-তলপেটে লাথি, মৃত্যু ১৪ বছরের কিশোরের (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
বন্ধুর সঙ্গে বচসার মধ্যে বুক-তলপেটে লাথি, মৃত্যু ১৪ বছরের কিশোরের (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

বন্ধুদের মধ্যে বচসার সময় বুক-তলপেটে লাথি, মৃত্যু ১৪ বছরের কিশোরের

  • অভিযুক্ত কিশোরের বিরুদ্ধে অনিচ্ছাকৃত খুনের ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।

আচমকাই দুই কিশোরের মধ্যে বাধে বচসা। তা ক্রমশ গড়ায় হাতাহাতিতে। সেই সময় একজনের বুকে ও তলপেটে লাথি মারে অপর কিশোর। অজ্ঞান হয়ে যায় প্রথম জন। দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও শেষরক্ষা হয়নি। তাকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। ঘটনাটি গড়িয়াহাটের ডোভার টেরেস এলাকার।

পুলিশ জানিয়েছে, সোমবার দুপুরে বাবার ফোনে খেলছিল ১৪ বছরের এক কিশোর। সেই সময় সেখানে আসে বছর ১৭-র অপর কিশোর। জানতে চায়, ফোনে সে কী গেম খেলছে। সেই প্রশ্নের উত্তর না দিয়ে প্রথম কিশোর জানতে চায়, দ্বিতীয় জনের হাতে কী আছে। বছর ১৭-র ওই কিশোরের হাতে আঠার টিউব ছিল।  

গড়িয়াহাট থানার এক আধিকারিক বলেন, ‘সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু'জনের মধ্যে বচসা বেধে যায়। যা হাতাহাতিতে গড়ায়। ছোটো ছেলেটির বুক ও তলপেটে লাথি মারে বড় ছেলেটি। ছোটো ছেলেটি অজ্ঞান হয়ে পড়ে। দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।’ 

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, দু'জনেরই বাড়ি ডোভার টেরেসের একটি বস্তিতে। তারা দীর্ঘদিনের বন্ধু। সেই বন্ধুত্বের মধ্যে কখনও কখনও ঝামেলা-মারপিট লেগেই থাকত। তবে তা এরকম পর্যায়ে পৌঁছে যেত না। তাদের প্রতিবেশি ঘুটান সিং বলেন, ‘ওরা প্রথমে যখন লড়াই শুরু করে, তখন কেউ পাত্তা দেয়নি। কারণ ওরা বন্ধু ছিল এবং নিয়মিত খেলত ও ঝগড়া করত। কিন্তু সোমবার ওরা হিংসাত্মক হয়ে যাওয়ায় প্রতিবেশিরা হস্তক্ষেপ করে। কিন্তু ততক্ষণে (১৪ বছরের) কিশোর অজ্ঞান হয়ে গিয়েছে।’

বছর ১৭-র অভিযুক্ত কিশোরকে পাকড়াও করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে অনিচ্ছাকৃত খুনের ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।

বন্ধ করুন