বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > টিকিটের আকালে খেলা দেখা হল না ফরাসি বন্ধুর,ফুটবলই মিলিয়ে দিল বাংলা আর ফ্রান্সকে

টিকিটের আকালে খেলা দেখা হল না ফরাসি বন্ধুর,ফুটবলই মিলিয়ে দিল বাংলা আর ফ্রান্সকে

কলকাতা ডার্বি ঘিরে উত্তেজনায় ফুটেছে লাল-হলুদ আর সবুজ-মেরুন।

কলকাতায় ফুটবলকে ঘিরে মাতামাতি দেখে দুজনেরই মনে পড়ে যায় দেশের কথা। আসলে কলকাতায় এসে ফুটবলের প্রতি প্রেম যেন আরও একবার উসকে উঠেছিল তাঁদের মনে। তাঁদের দেশেও ফুটবলকে ঘিরে প্রতিযোগিতা চরমে থাকে। আর বাংলায় এসে তাঁরা দেখলেন ইস্টবেঙ্গল আর মোহনবাগানের ম্য়াচকে ঘিরে সেই চিরচেনা টান টান উত্তেজনা।

ফিলিপ ও ক্য়ালন জেথ। সেই সুদূর ফ্রান্স থেকে বেড়াতে এসেছিলেন কলকাতায়। কলকাতার আনাচে কানাচে নানা দ্রষ্টব্য এলাকা ঘুরে বেরিয়েছেন তাঁরা। এরপর যুবভারতীর বাইরে ফুটবলারদের কাট আউটে চোখ আটকে যায় তাঁদের। তাঁরা জানতে পারেন ডার্বির কথা। আর সেই ডার্বিতে আর কেউ নয়, ইস্টবেঙ্গল আর মোহনবাগানের খেলা। আর দেরি করেননি তাঁরা। ফুটবল ম্য়াচ দেখার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন তাঁরা। সেই মতো শনিবার সকাল থেকেই  ম্য়াচ দেখার জন্য টিকিট জোগাড় করার চেষ্টা করেন তাঁরা। কিন্তু টিকিটের ভয়াবহ আকাল।

কলকাতায় ফুটবলকে ঘিরে উন্মাদনা লেন্সবন্দি করলেন তাঁরা। কিন্তু টিকিটের অভাবে শেষ পর্যন্ত খেলা দেখতে পারলেন না তাঁরা। কলকাতায় এসে ফুটবল ম্যাচ দেখতে না পেরে মন খারাপ দুই ফরাসি বন্ধুর।

বাস্তবিকই লাল হলুদ আর সবুজ মেরুনের যুদ্ধকে গ্যালারিতে বসে উপভোগ করার সুযোগ মিস করলেন তাঁরা। হোটেলে ফিরে টিভিতেই বাকি খেলাটা দেখার পরিকল্পনা নিয়েছিলেন দুই ফরাসি বন্ধু। 

তবে কলকাতায় ফুটবলকে ঘিরে মাতামাতি দেখে দুজনেরই মনে পড়ে যায় দেশের কথা। আসলে কলকাতায় এসে ফুটবলের প্রতি প্রেম যেন আরও একবার উসকে উঠেছিল তাঁদের মনে। তাঁদের দেশেও ফুটবলকে ঘিরে মার্সেই আর পিএসজির মধ্যে প্রতিযোগিতা চরমে থাকে। আর বাংলায় এসে তাঁরা দেখলেন ইস্টবেঙ্গল আর মোহনবাগানের ম্য়াচকে ঘিরে সেই চিরচেনা টান টান উত্তেজনা। আর খেলাকে ঘিরে এই উন্মাদনা, এই ঠাণ্ডা লড়াই যেন মিলিয়ে দিল বাংলা আর ফ্রান্সকে। 

বন্ধ করুন