বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‌করোনার দাপটে একগুচ্ছ লোকাল ট্রেন বাতিল শিয়ালদহে
‌করোনার দাপটে একগুচ্ছ লোকাল ট্রেন বাতিল শিয়ালদহে। (ফাইল ছবি, সৌজন্য এএনআই)
‌করোনার দাপটে একগুচ্ছ লোকাল ট্রেন বাতিল শিয়ালদহে। (ফাইল ছবি, সৌজন্য এএনআই)

‌করোনার দাপটে একগুচ্ছ লোকাল ট্রেন বাতিল শিয়ালদহে

  • শিয়ালদা-হাওড়া ডিভিশনে ৫০ চালক ও গার্ড করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর। শিয়ালদা ডিভিশনে সোমবার ২৫ ট্রেন লোকাল ট্রেন বাতিল করা হয়েছে

করোনার দাপটে পরিস্থিতি আরও ভয়াল হয়ে উঠছে। দ্বিতীয় ঢেউয়ে টালমাটাল অবস্থা। একের পর এক রেল কর্মীদের শরীরে থাবা বসাচ্ছে করোনা। এর প্রভাব পড়ল ট্রেন পরিষেবায়। আবারও বাতিল করা হল একগুচ্ছ লোকাল ট্রেন। শিয়ালদহ-হাওড়া ডিভিশনে ৫০ চালক ও গার্ড করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর। 

শিয়ালদহ ডিভিশনে সোমবার ২৫ ট্রেন লোকাল ট্রেন বাতিল করা হয়েছে। দূরপাল্লার ট্রেন পরিষেবা স্বাভাবিক রাখতেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানা গিয়েছে। হাওড়া ডিভিশনে কোনও ট্রেন এখনও বাতিল হয়নি। তবে ট্রেন বাতিলের আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে বলে রেল সূত্রে খবর। কারণ, পরিস্থিতি দিন দিন খারাপ হচ্ছে।

গত বছর লকডাউনের পর দীর্ঘদিন ট্রেন পরিষেবা বন্ধ ছিল। ওই পর্বে পরে বিশেষ কয়েকটি ট্রেন চলাচল করেছিল। তবে লোকাল ট্রেন পরিষেবা বন্ধই ছিল। বেশ কয়েকমাস পরে কোভিড বিধি মেনে ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। পূর্ব রেল সূত্রে খবর, শিয়ালদহ শাখায় বাতিল করা হয়েছে ২৯ টি লোকাল ট্রেন। সম্প্রতি ট্রেনের চালক ও গার্ডরা করোনা আক্রান্ত হওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল। রেল কীভাবে চলবে, তা নিয়ে রাজ্য সরকারের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন রেলের আধিকারিকরা।

করোনার দাপট বাড়তে থাকায় কয়েকদিন ধরেই শিয়ালদহ বেশ কয়েকটি লোকাল ট্রেন বাতিল করা হয়েছিল।পাশাপাশি বিশেষ সতর্কতা নিতে বলা হয়েছিল চালক, গার্ডদের। গত কয়েকদিন ধরে রাজ্যে করোনা সংক্রমণ হু হু করে বাড়ছে। লোকাল ট্রেন, প্ল্যাটফর্মে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। তা না হলে আর্থিক জরিমানা পর্যন্ত হতে পারে, এমন নির্দেশিকাও জারি করেছে রেল। কিন্তু অভিযোগ, তারপরও জনসচেতনতা তৈরি হয়নি। একের পর এক গার্ড, চালকের শরীরে থাবা বসাচ্ছে করোনা ভাইরাস। ফলে এবার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতেই হল। শিয়ালদহ শাখায় ২৯ টি লোকাল ট্রেন বাতিল করা হল। এছাড়া দূরপাল্লার ট্রেনের যাত্রীদের ক্ষেত্রে আরটিপিসিআর রিপোর্ট বাধ্যতামূলক। রেলে আইসোলেশন কোচের ব্যবস্থা হবে কীভাবে? তা নিয়েও ভাবনাচিন্তা করছে রেল।

বন্ধ করুন