বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > বিদ্রোহের সাজা, পিটিএস থেকে বদলি করা হল আরও ২৫ জন ‘সিপাহী’কে
১৯ মে রাতে বিক্ষোভরত পুলিশকর্মীরা
১৯ মে রাতে বিক্ষোভরত পুলিশকর্মীরা

বিদ্রোহের সাজা, পিটিএস থেকে বদলি করা হল আরও ২৫ জন ‘সিপাহী’কে

  • বৃহস্পতিবার বদলির চিঠি ধরানো হয়েছে আরও ২৫ জন পুলিশকর্মীকে। এদের মধ্যে RAF ও DMG-র কয়েকজন সদস্যও রয়েছেন।

কথা বলবেন বলে কথা দিয়ে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু কথা রাখেননি। উলটে এসেছে বদলির চিঠি। কলকাতা পুলিশ ট্রেনিং স্কুলে ‘সিপাহী বিদ্রোহ’-এ সামিল আরও ২৫ জন পুলিশকর্মীকে বদলি করা হল জেলায়। এদের বিরুদ্ধে গত ১৯ মে রাতে কলকাতা পুলিশের কমব্যাট ফোর্সের ডেপুটি কমিশনার নভেন্দ্র সিং পলকে হেনস্থা করার অভিযোগ রয়েছে বলে দাবি। 

উপযুক্ত সুরক্ষাবিধি না-মেনেই করোনা কবলিত এলাকায় কমব্যাট ফোর্সের জওয়ানদের মোতায়েন করা হচ্ছে, এই অভিযোগে গত ১৯ মে রাতে উত্তাল হয়ে ওঠে কলকাতা পুলিশ ট্রেনিং স্কুল চত্বর। ডিসি কমব্যাট ফোর্সকে রীতিমতো রে রে করে তাড়া করেন পুলিশকর্মীরা। অন্যান্য আধিকারিকদের নিয়ে রীতিমতো রাস্তা দিয়ে দৌড়ে পালিয়ে বাঁচেন। এর পর পিটিএস-এর সামনে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন পুলিশকর্মীরা। 

তখন মাথার ওপর ঘুরপাক খাচ্ছে ঘূর্ণিঝড় আমফান। পরদিন বেলায় বাড়ি থেকে নবান্ন যাওয়ার পথে পুলিশ ট্রেনিং স্কুলের সামনে গাড়ি থেকে নামেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তখনও সেখানে চলছিল বিক্ষোভ। মুখ্যমন্ত্রীকে দেখে নিজেদের ক্ষোভ উগরে দেন পুলিশকর্মীরা। তাঁদের বিপর্যয় মোকাবিলায় ঝাঁপিয়ে পড়ার আহ্বান জানিয়ে মমতা বলেন, আমি নিজে আসব আপনাদের সঙ্গে কথা বলতে। 

মুখ্যমন্ত্রী আর আসেননি। বদলে এসেছে বদলির চিঠি। ইতিমধ্যে ৯ জুন ওই বিক্ষোভে অংশগ্রহণকারী ১৩ জন পুলিশকর্মীকে রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় বদলি করেছে নবান্ন। বৃহস্পতিবার বদলির চিঠি ধরানো হয়েছে আরও ২৫ জন পুলিশকর্মীকে। এদের মধ্যে RAF ও DMG-র কয়েকজন সদস্যও রয়েছেন। 

এদিন ১৬ জন পুলিশকর্মীকে সাউথ সাবআরবান ডিভিশন, সাউথ ওয়েস্ট ডিভিশন ও ট্রাফিক গার্ডে বদলি করা হয়েছে। 

বন্ধ করুন