বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কলকাতা পুরসভার শিবিরে হিসাব নেই ৩০টি করোনা টিকার
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

কলকাতা পুরসভার শিবিরে হিসাব নেই ৩০টি করোনা টিকার

  • খবর পেয়ে সেখানে পৌছন কলকাতা পুরসভার তিন নম্বর বরোর কোঅর্ডিনেটর অনিন্দ্য রাউত। তিনি বলেন, ‘এই ঘটনা এই প্রথম ঘটল। ৩০টা টিকা গেল কোথায় তা বোঝা যাচ্ছে না। বিষয়টি সর্বোচ্চ স্তরে খতিয়ে দেখা হবে।’

কলকাতা পুরসভার টিকাকরণ শিবির থেকে গায়েব করোনার ৩০টি টিকা। মঙ্গলবার উলটোডাঙায় পুরসভার একটি টিকাকরণ ক্যাম্পে এই ঘটনা ঘটে। যা নিয়ে উঠছে নানা প্রশ্ন। তবে কি পুরসভার ভিতর থেকেই গায়েব হচ্ছে টিকা? পুরসভার স্বাস্থ্য বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রশাসক অতীন ঘোষের দাবি, হ্যাক হয়ে থাকতে পারে পুরসভার সার্ভার। তাই ভুল তথ্য দেখাচ্ছে কম্পিউটার।

মঙ্গলবার উলটোডাঙা এলাকায় একটি টিকাকরণ শিবিরের আয়োজন করে কলকাতা পুরসভা। সেখানে টিকা নেন ১৪১ জন। কিন্তু দিনের শেষে কম্পিউটারে দেখা যায় টিকা নিয়েছেন ১৭১ জন। বাকি ৩০ জন এলেন কোথা থেকে? প্রশ্নের জবাব নেই পুরসভার কাছে। অনেকবার হিসাব করেও মেলাতে পারেননি পুরসভার আধিকারিকরা।

খবর পেয়ে সেখানে পৌছন কলকাতা পুরসভার তিন নম্বর বরোর কোঅর্ডিনেটর অনিন্দ্য রাউত। তিনি বলেন, ‘এই ঘটনা এই প্রথম ঘটল। ৩০টা টিকা গেল কোথায় তা বোঝা যাচ্ছে না। বিষয়টি সর্বোচ্চ স্তরে খতিয়ে দেখা হবে।’

অতীনবাবু বলেন, ‘এই ঘটনা ঘটতে পারে না। নিশ্চই কম্পিউটারে কোনও গোলমাল হয়েছে বা কেউ কম্পিউটার হ্যাক করেছে।’ বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে কলকাতা পুরসভা।

বেশ কিছুদিন ধরে রাজ্যে রাজ্যে টিকাকরণে দুর্নীতির নানা অভিযোগ উঠছে। মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘায়ের মতো প্রকাশ্যে এসে গিয়েছে দেবাঞ্জনের দুর্নীতি। তার পর টিকার হিসাবে গরমিলে অনেকের দাবি, এভাবেই টিকা সরছে গরমিলের দোহাই দিয়ে।

 

বন্ধ করুন