বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ডোমের পরীক্ষায় পাশ করলেন ৩৭ জন, স্নাতকোত্তর–ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রিধারীরাও আছেন
নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল। ফাইল ছবি

ডোমের পরীক্ষায় পাশ করলেন ৩৭ জন, স্নাতকোত্তর–ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রিধারীরাও আছেন

  • ৩১ অগস্ট ওই ৩৭ জনকে প্র্যাক্টিক্যাল ও মৌখিক পরীক্ষায় ডাকা হয়েছে। এঁরা সবাই ডোম হবেন। অর্থাৎ যত জনকে নেবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

ডোম পদে আবেদন করেছিলেন অনেকেই। আসলে কোনও কাজই তো ছোট নয়—এই প্রবাদকেই আঁকড়ে ধরেছিলেন তাঁরা। অবশেষে নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ল্যাবরেটরি অ্যাটেড্যান্ট (ডোম) পদের লিখিত পরীক্ষায় ৫০ শতাংশ নম্বর পেয়ে পাশ করেছেন ৩৭ জন পরীক্ষার্থী। তাঁদের মধ্যে মহিলা রয়েছেন পাঁচজন। ৩১ অগস্ট ওই ৩৭ জনকে প্র্যাক্টিক্যাল ও মৌখিক পরীক্ষায় ডাকা হয়েছে। এঁরা সবাই ডোম হবেন। অর্থাৎ যত জনকে নেবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

হাসপাতাল সূত্রে খবর, এই পদের বেতন মাসিক ১৫ হাজার টাকা। আর ডোমের ৬টি শূন্য পদে আবেদন জমা পড়েছিল প্রায় ৮ হাজার। ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা অষ্টম শ্রেণি পাশ। কিন্তু দেখা গিয়েছিল এই পদে চাকরি পাওয়ার জন্য ইঞ্জিনিয়ারিং, স্নাতকোত্তর, স্নাতক পরীক্ষায় উত্তীর্ণেরাও আবেদন করেছিলেন। এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই শোরগোল পড়ে যায়। আবেদন যাচাই করে ৭৮৪ জনকে লিখিত পরীক্ষায় ডাকা হয়। ১ অগস্ট সেই পরীক্ষা দেন ২৮৪ জন। সেখানে অষ্টম শ্রেণি পাশ প্রার্থীর পাশাপাশি স্নাতকোত্তর, ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রিধারীরাও ছিলেন।

উল্লেখ্য, বুধবার ওই ২৮৪ জনের পরীক্ষার ফলপ্রকাশ করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩৭ জন ৫০ শতাংশ নম্বর পেয়েছেন। এবার এনআরএস কর্তৃপক্ষ বিজ্ঞপ্তি জারি করে ওই ৩৭ জনকে প্র্যাক্টিক্যাল ও মৌখিক পরীক্ষায় ডেকেছেন। ওই ৩৭ জনের মধ্যে ইঞ্জিনিয়ারিং, স্নাতকোত্তর বা স্নাতক ডিগ্রিধারী থাকতে পারেন বলে সূত্রের খবর।

বন্ধ করুন