কলকাতার নির্জন রাজপথে সওয়ারি নিয়ে এক টানা রিকশ
কলকাতার নির্জন রাজপথে সওয়ারি নিয়ে এক টানা রিকশ

করোনা আক্রান্ত অবস্থায় পশ্চিমবঙ্গে আরও ৪ জনের মৃত্যু, মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ১১

  • তবে এদের মধ্যে কার মৃত্যু করোনায় আর কে অন্য কারণে মারা গিয়েছেন তা এখনো জায়াননি স্বাস্থ্য দফতর। ফলে সরকারিভাবে এখনো মৃতের সংখ্যা ৩।

রাজ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত অবস্থায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ১১। শনিবার থেকে উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গ মিলিয়ে পশ্চিমবঙ্গে আরও ৪ জনের করোনা আক্রান্ত অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ৩ জন দক্ষিণবঙ্গে ও ১ জন উত্তরবঙ্গে মারা গিয়েছেন। উত্তরবঙ্গে যিনি মারা গিয়েছেন তাঁর সংক্রমণ হাসপাতাল থেকে ছড়িয়েছিল বলে দাবি পরিবারের।

শনিবার রাতে কলকাতার বাইপাসের কাছে একটি হাসপাতালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত অবস্থায় ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। আমহার্স্ট স্ট্রিটের ওই বাসিন্দা কিডনির সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। পরে তাঁর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তাঁর পরিবারের সদস্যদের কোয়ানেরটাইনে পাঠানো হয়েছে।

রবিবার সকালে বিধাননগরের বেসরকারি হাসপাতালে মৃত্যু হয় শেওড়াফুলির প্রৌঢ়ের। বেশ কয়েকদিন ধরে তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক ছিল। তাঁর পরিবারের সদস্যরা কোয়ারেনটাইনে আছেন।

এছাড়া NRS হাসপাতালে ১ ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। তিনি গত সোমবার NRS-এ ভর্তি হন। তিনি কখনও বিদেশভ্রমণে যাননি। শুক্রবার তাঁর নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল। শনিবার তাঁর মৃত্যু হয়। তার পর রিপোর্ট এলে দেখা যায় করোনাভাইরাস পজিটিভ। এর জেরে হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স-সহ ৫০ জনকে কোয়ারেনটাইনে পাঠানো হয়েছে।

শনিবার রাতে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। পরিবারের দাবি, উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে কালিম্পংয়ের যে বাসিন্দার মৃত্যু হয়েছিল তাঁর সঙ্গেই চিকিৎসা চলছিল তাঁর। সেখান থেকেই করোনা সংক্রমণের শিকার হন তিনি। তিনি শিলিগুড়ির প্রধাননগরের বাসিন্দা।

চার মৃত্যুতে পশ্চিমবঙ্গে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেসরকারিভাবে দাঁড়াল ১১। তবে এদের মধ্যে কার মৃত্যু করোনায় আর কে অন্য কারণে মারা গিয়েছেন তা এখনো জায়াননি স্বাস্থ্য দফতর। ফলে সরকারিভাবে এখনো মৃতের সংখ্যা ৩।



বন্ধ করুন