বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ৪ লক্ষ ভ্যাকসিন এসেছে কলকাতায়, ‘চাহিদার নিরিখে যোগান কম’, মানছে স্বাস্থ্যদফতর

 ভ্যাকসিন না পাওয়ার অভিযোগকে কেন্দ্র করে একেবারে তুলকালাম কাণ্ড কলকাতা থেকে শহরতলিতে। এই সংকটের মধ্যেই বুধবার দুপুরে কলকাতায় এসে পৌঁছয় ৪ লক্ষ কোভিশিল্ড ভ্যাকসিন। এদিন দুপুরে স্পাইসজেটের বিমানে কলকাতা বিমানবন্দরে আসে ভ্যাকসিনগুলি। এগুলিকে কলকাতার বাগবাজারের গোডাউনে আপাতত রাখা হচ্ছে। স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর, পুনে থেকে এই ভ্যাকসিনগুলিকে নিয়ে আসা হয়েছে। এদিন কলকাতা বিমানবন্দর থেকে স্বাস্থ্য দফতরের কর্তা, পুলিশের উপস্থিতিতে কোভিশিল্ড বোঝাই গাড়িকে বাগবাজারের দিকে রওনা করানো হয়।  একেবারে সিল করা প্যাকেটে থরে থরে ভ্যাকসিনগুলিকে গাড়িতে সাজানো হয়। রীতিমতো পুলিশ পাহারায় ভ্যাকসিন বোঝাই গাড়ি রওনা দেয় বাগবাজারের দিকে। প্রসঙ্গত স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর, গত কয়েকদিন ধরে উপরমহল থেকে সবুজ সংকেতের ভিত্তিতে জেলায় জেলায় পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে করোনা ভ্যাকসিন।

কিন্তু বাসিন্দাদের প্রশ্ন, যে পরিমাণ ভ্যাকসিনের চাহিদা রয়েছে গোটা বাংলা জুড়ে তা কি আদৌ মিটবে এই ৪ লক্ষ ভ্যাকসিন দিয়ে? এই ভ্যাকসিন কি আদৌ জনতার ক্ষোভে জল ঢালতে পারবে? স্বাস্থ্য় দফতরের নোডাল অফিসার গৌতম চৌধুরী বলেন, ' ৪লক্ষ কোভিশিল্ড ভ্যাকসিন এসেছে। এটা পুনে থেকে এসেছে। আমাদের যে চাহিদা রয়েছে তার তুলনায় যোগান অনেক কম। আমরা সীমিত যে পরিমাণ ভ্যাকসিন পাচ্ছি তার মধ্যে থেকেও রাজ্যের প্রতিটি জেলায় পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা চলছে।আমাদের যে পরিকাঠামো আছে, আমাদের উচ্চতর কর্তৃপক্ষ যেভাবে গাইডলাইন দিচ্ছে সেভাবে  বিভিন্ন জেলায় পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।' কিন্তু আগামী দিনে ভ্যাকসিনজনিত সমস্য়া কি থাকবে? দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক বলেন,' আমাদের চাহিদা অনুসারে যদি ভ্যাকসিন সরবরাহ হয় তবে আশা করি সমস্যাটা মিটবে।' 

বন্ধ করুন