বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > স্বনির্ভর গোষ্ঠীকে এক ছাতার তলায় আনতে তৈরি হচ্ছে পোর্টাল, উদ্যোগী সরকার

স্বনির্ভর গোষ্ঠীকে এক ছাতার তলায় আনতে তৈরি হচ্ছে পোর্টাল, উদ্যোগী সরকার

স্বনির্ভর গো্ষ্ঠী

যে ১৩টি স্বনির্ভর গোষ্ঠীর কথা বলা হয়েছে, এদের মধ্যে ৯টি স্বনির্ভর গোষ্ঠী রাজ্যের পঞ্চায়েত দফতরের অধীনে রয়েছে।

‌রাজ্যের ১৩টি স্বনির্ভর গোষ্ঠীকে এক ছাতার তলায় নিয়ে আসতে উদ্যোগী হল সরকার। এদের জন্য সরকারের উদ্যোগে তৈরি করা হচ্ছে একটি ডেডিকেটেড পোর্টাল। সামনেই বসছে বিশ্ব বঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলন। সেখানেই এই ধরনের পোর্টালের উদ্বোধন করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

নবান্ন সূত্রে খবর, নতুন এই প্রকল্পের নামকরণ করেছেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী। নতুন এই প্রকল্পের নামকরণ করা হয়েছে ‘‌নিজস্বনী’‌। নতুন এই পোর্টালের মাধ্যমে প্রতিটি স্বনির্ভর গোষ্ঠীর নাম, ঠিকানা, যোগাযোগ নম্বরের পাশাপাশি আর্থিক লেনদেনের দিকগুলিও তুলে ধরা হবে। এই সব স্বনির্ভর গোষ্ঠীগুলি তাঁদের কাজকর্মে কতটা সাফল্য পাচ্ছে, তার বিস্তারিত তথ্য উঠে আসবে এই পোর্টালের মাধ্যমে। পাশাপাশি কোন ধরনের স্বনির্ভর গোষ্ঠীর জন্য কী উদ্যোগ নেওয়া প্রয়োজন, সেই বিষয়টিও সরকারি আধিকারিকদের ঠিক করে নেওয়া সম্ভব হবে।

প্রশাসন সূত্রে খবর, যে ১৩টি স্বনির্ভর গোষ্ঠীর কথা বলা হয়েছে, এদের মধ্যে ৯টি স্বনির্ভর গোষ্ঠী রাজ্যের পঞ্চায়েত দফতরের অধীনে রয়েছে। সেই কারণে পঞ্চায়েত দফতরকেই পুরো বিষয়টির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে শহরাঞ্চলের স্বনির্ভর গোষ্ঠী পুর ও নগরোন্নয়ন দফতরের অধীনে রয়েছে। পাশাপাশি সমবায়, সংখ্যালঘু উন্নয়ন ও মাদ্রাসা শিক্ষা, অনগ্রসর শ্রেণি উন্নয়ন দফতর ও স্বনির্ভর গোষ্ঠী ও স্বনিযুক্তি দফতরের অধীনেও অনেক স্বনির্ভর গোষ্ঠী রয়েছে, যাদের এক ছাতার তলায় নিয়ে আসার কাজ চলছে। এই কাজ শেষ হয়ে গেলে স্বনির্ভর গোষ্ঠীগুলির সামগ্রিক উন্নয়নে আর কোনও অসুবিধার সৃষ্টি হবে না। এর আগেও বিভিন্ন দফতরের অধীনে থাকা বার্ধক্য ভাতাকে এক ছাতার তলার নিয়ে আসার কাজ করেছিল রাজ্য সরকার। এবার রাজ্যের বিভিন্ন স্বনির্ভর গোষ্ঠীগুলিকে এক ছাতার তলায় নিয়ে আসার পরিকল্পনা নিয়েছে রাজ্য।

বন্ধ করুন