বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মাস্ক না পরে মদ্যপ উঠল অটোতে, প্রতিবাদ করলে হুমকি দেওয়া হল যুবতীকে
মাস্ক না পরায় প্রতিবাদ করেন যুবতী। প্রতীকী ছবি সৌজন্য–এএনআই।
মাস্ক না পরায় প্রতিবাদ করেন যুবতী। প্রতীকী ছবি সৌজন্য–এএনআই।

মাস্ক না পরে মদ্যপ উঠল অটোতে, প্রতিবাদ করলে হুমকি দেওয়া হল যুবতীকে

  • এই ঘটনা পূর্ব কলকাতার বেলেঘাটা এলাকায় ঘটেছে। ইতিমধ্যেই থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে বলে খবর।

রাজ্যজুড়ে করোনা সংক্রমণের বাড়বাড়ন্ত দেখা গিয়েছে। তার জেরে কলকাতা–সহ অন্যান্য জায়গা কার্যত ফাঁকা হয়ে গিয়েছে। মাস্ক পড়া কার্যত বাধ্যতামূলক। এই পরিস্থিতিতে দেখা গেল অটোয় সহযাত্রীর মুখে নেই মাস্ক। তাই করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে বুঝে প্রতিবাদ করেছিলেন যুবতী। পাল্টা তাঁকে হুমকি ও হেনস্তার শিকার হতে হল। এই ঘটনা পূর্ব কলকাতার বেলেঘাটা এলাকায় ঘটেছে। ইতিমধ্যেই থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে বলে খবর।

পুলিশ সূত্রে খবর, বুধবার রাত সাড়ে ১০টা নাগাদ এই ঘটনা ঘটেছে। মানিকতলার সাহিত্য পরিষদ স্ট্রিট থেকে বেলেঘাটার সিআইটি রোড যাওয়ার জন্য একটি অটো ধরেন ওই যুবতী। তিনি বেলেঘাটারই বাসিন্দা। তখন অটোয় যাত্রী ও চালকের মুখে মাস্ক ছিল। মাস্ক পরেছিলেন ওই যুবতীও। তারপর কাঁকুড়গাছি থেকে একজন ওই অটোয় ওঠেন। যার মুখে মাস্ক ছিল না। ওই যাত্রী মাস্ক না পরায় প্রতিবাদ করেন যুবতী। ওই ব্যক্তি মদ্যপান করেছিল বলে অভিযোগ। তখন যুবতীকে উদ্দেশ্য করে কুটূক্তি এবং গালিগালাজের পাশাপাশি দেখে নেওয়ার হুমকিও দেন।

রাতেই বাড়ির সদস্যদের পরামর্শে বেলেঘাটা থানায় যান যুবতী। অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ ওই এলাকার বাসিন্দাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে জানতে পারে, অভিযুক্ত ব্যক্তি বেলেঘাটা এলাকারই বি এম রোডের বাসিন্দা। গভীর রাতে রাতে ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধেই যুবতীকে হুমকি ও হেনস্তার অভিযোগ তুলে মামলা দায়ের করা হয়। রাস্তা বা বাজারের সঙ্গে সঙ্গে চলন্ত বাস, অটো বা ট্যাক্সির চালক ও যাত্রী প্রত্যেকের মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

বন্ধ করুন