বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ক্ষমতা থাকলে সরকারি সম্পত্তি নষ্টের জন্য মমতার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করে দেখান অভিষেক
রাহুল সিনহা। ফাইল ছবি

ক্ষমতা থাকলে সরকারি সম্পত্তি নষ্টের জন্য মমতার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করে দেখান অভিষেক

  • বুধবার বিকেলে সংবাদমাধ্যমকে রাহুল সিনহা বলেন, ‘সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করার জন্য অভিষেকের ক্ষমতা থাকলে আগে মমতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সংবিধানের পীঠস্থান বিধানসভা ভবন ভাঙচুরে নেতৃত্ব দিয়েছেন, তিনি আবার বড় বড় কথা বলছেন। ভাঙচুর করাই তৃণমূলের রাজনীতি।

নবান্ন অভিযান কর্মসূচিতে বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করার অভিযোগ তুলে কঠোর পদক্ষেপের দাবি করেছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই মন্তব্যের জন্য অভিষেককে পালটা বিধানসভা ভাঙচুরের কথা মনে করালেন বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা। প্রশ্ন করলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শাস্তির ব্যবস্থা করার ক্ষমতা কী রয়েছে অভিষেকের?’

বুধবার বিকেলে সংবাদমাধ্যমকে রাহুল সিনহা বলেন, ‘সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করার জন্য অভিষেকের ক্ষমতা থাকলে আগে মমতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সংবিধানের পীঠস্থান বিধানসভা ভবন ভাঙচুরে নেতৃত্ব দিয়েছেন, তিনি আবার বড় বড় কথা বলছেন। ভাঙচুর করাই তৃণমূলের রাজনীতি। তৃণমূলের গোটা রাজনৈতিক জীবনে যত সম্পত্তি ওরা নষ্ট করেছে সমস্ত রাজনৈতিক দল মিলিয়েও এত সরকারি সম্পত্তি নষ্ট হয়নি। যারা সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করে আর পুলিশের ওপর হামলা করে আজকে এখানে পৌঁছল তারা এসব কথা বলছে। কংগ্রেসি গুন্ডা আর সিপিএমের মস্তান দিয়ে তৃণমূল তৈরি হয়েছে’।

ব্যক্তি ভুল করলে দল দায় নেবে না, বিধায়কদের বৈঠকে কড়া বার্তা তৃণমূলের

এদিন SSKM-এ কলকাতা পুলিশের আহত আধিকারি দেবজিৎ চক্রবর্তীর সঙ্গে সাক্ষাতের পর অভিষেক বলেন, মঙ্গলবার সরকারি সম্পত্তি ধ্বংস করার পরিকল্পনা নিয়ে রাস্তায় নেমেছিেলন বিজেপি নেতাকর্মীরা। নইলে পুলিশের গাড়ি জ্বালানোর জন্য তারা পেট্রল পেলেন কোথা থেকে? সঙ্গে তিনি বলেন, আন্দোলনের নামে যারা সরাকারি সম্পত্তি নিষ্ট করেছে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ করা উচিত।

 

বন্ধ করুন