অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

দুর্ঘটনা এখনও ভোগাচ্ছে, তাই বাড়ি বসে দলের কাজ করবেন অভিষেক, জানিয়ে দিলেন মমতা

চলতি মাসের শুরুর দিকে হায়দরাবাদে ষষ্ঠ বারের জন্য অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের চোখে অস্ত্রোপচার হয়।

তৃণমূলের ছাত্র-যুব কর্মশালায় হাজির হয়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন তৃণমূলনেত্রী তথা তাঁর পিসি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন তিনি জানান, চোখে অস্ত্রোপচার হওয়ায় আগামী কয়েকদিন বাড়তে বসেই দলের কাজ করবেন অভিষেক।

চলতি মাসের শুরুর দিকে হায়দরাবাদে ষষ্ঠ বারের জন্য অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের চোখে অস্ত্রোপচার হয়। চার বছর আগে প্রচার সেরে ফেরার সময় দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়েতে দুর্ঘটার মুখে পড়েন অভিষেক। তাঁর করোটিতে গুরুতর আঘাত লাগে। সেই থেকে একের পর এক অস্ত্রোপচার হয়েছে তাঁর। তবে দমবার পাত্র নন তৃণমূলের এই যুব নেতা। প্রতিবারই দ্রুত সুস্থ হয়ে দলের কাছে যোগ দিয়েছেন।

চিকিৎসকদের পরামর্শমতো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের চোখে ধুলোবালি লাগানো একেবারে বারণ। মমতা এদিন বলেন, ‘অভিষেক বাড়ি থেকে বেরোবে না মানে এই নয় যে ও দলের কাজ করবে না। বাড়িতে বসেই ও দায়িত্ব সামলাবে।’

গত লোকসভা নির্বাচনের পর থেকে তৃণমূলের যাবতীয় দায়িত্ব বকলমে নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছেন অভিষেক। প্রশান্ত কিশোরকে দলের কাজে লাগানোও তাঁরই মস্তিষ্কপ্রসূত। দলের হাতে গোনা কয়েকজন বাদ দিলে বাকি সবাই অভিষেকের নির্দেশেই চলেন। দায়িত্বের গুরুত্ব বুঝে অভিষেকও কখনও এতটুকু গাফিলতি করেন না। যেমন এবারই অস্ত্রোপচার সেরে ফিরে বৈঠক করেছেন প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে। ইতিমধ্যে ২০২১ –এর ঘুঁটি সাজাতে শুরু করেছেন তিনি।



বন্ধ করুন