বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > সেক্টর ফাইভের রাস্তায় সজোরে ধাক্কা বাসের! ছিটকে পড়লেন যাত্রীরা, গলগল করে রক্ত

সেক্টর ফাইভের রাস্তায় সজোরে ধাক্কা বাসের! ছিটকে পড়লেন যাত্রীরা, গলগল করে রক্ত

গাছে গিয়ে ধাক্কা দিল বেসরকারি বাসটি। প্রতীকী ছবি (প্রতীকী ছবি)

এক যাত্রীর চোখের নীচে কালসিটে দাগ পড়ে গিয়েছে। মাথা ফেটে গিয়েছে। যাত্রীরা জানিয়েছেন, কলেজ মোড়ের দিকে যাচ্ছিল। এর আগেও বাসটি দুর্ঘটনার মুখে পড়েছিল। তখনও সতর্ক করা হয়েছিল। ফের সেই একই ঘটনা। চালক সতর্ক হওয়া তো দূরের কথা আরও বেপরোয়াভাবে চালাতে শুরু করেছিল বলে অভিযোগ।

বৃষ্টিভেজা কলকাতা। তার মধ্যে বেপরোয়া গতিতে সেক্টর ফাইভের রাস্তা ধরে ছুটছিল বাসটি। যাত্রীরা বার বার বারনও করেছিলেন, এত জোরে গাড়ি চালাবেন না। যে কোনও সময় দুর্ঘটনা হতে পারে। কিন্তু তবুও শোনেননি চালক। আর এসবের মধ্যেই আচমকাই ভয়ঙ্কর একটা আওয়াজ। রাস্তার ধারে সজোরে ধাক্কা দেয় বাসটি। 

এদিকে প্রচন্ড জোরে ধাক্কা দেওয়ার জেরে এক যাত্রী গুরুতর জখম হয়েছেন। স্থানীয় একটি বেসরকারি কলেজের দুজন পড়ুয়াও বাসে ছিলেন। তাঁরাও বাসের মধ্যেই ছিটকে পড়েন। তাদের শরীরে চোট লাগে মারাত্মক। এদিকে তাদের এদিন পরীক্ষা ছিল। সেই পরীক্ষাতেও তারা বসতে পারেননি। তবে সবথেকে বেশি জখম হয়েছেন ওই প্রৌঢ়। তাঁর সাদা জামা একেবারে রক্তে ভিজে গিয়েছে।

চিংড়িঘাটা থেকে ধূলাগড়ের দিকে যাচ্ছিল বাসটি। সেক্টর ফাইভের আশ্রম বিল্ডিংয়ের সামনে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি রাস্তার ধারের গাছে ধাক্কা মারে। এই ঘটনায় যাত্রীদের মধ্যে ব্যপক আতঙ্ক ছড়িয়েছে। পাশাপাশি যাত্রীদের একাংশের দাবি, বার বার চালককে এভাবে বেপরোয়াভাবে চালাতে নিষেধ করা হয়েছিল। কিন্তু কোনওভাবেই চালক কথা কানে নেননি। সজোরে বাসটি গাছে ধাক্কা দেয়।

এদিকে এক যাত্রীর চোখের নীচে কালসিটে দাগ পড়ে গিয়েছে। মাথা ফেটে গিয়েছে। যাত্রীরা জানিয়েছেন, কলেজ মোড়ের দিকে যাচ্ছিল। এর আগেও বাসটি দুর্ঘটনার মুখে পড়েছিল। তখনও সতর্ক করা হয়েছিল। ফের সেই একই ঘটনা। চালক সতর্ক হওয়া তো দূরের কথা আরও বেপরোয়াভাবে চালাতে শুরু করেছিল বলে অভিযোগ।ইলেকট্রনিক্স কমপ্লেক্স থানার পুুলিশ যাত্রীদের উদ্ধার করেছে।

বন্ধ করুন