বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > প্রসব করাতে হবে নার্সিংহোমে, টাকা নিয়ে চিকিৎসা মেডিকেল কলেজে, বিতর্কে নির্মল
ডাঃ নির্মল মাজি। ছবি সৌজন্য : টুইটার

প্রসব করাতে হবে নার্সিংহোমে, টাকা নিয়ে চিকিৎসা মেডিকেল কলেজে, বিতর্কে নির্মল

  • গোটা বিষয়টি হয়েছে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের অ্যানেক্স লেডি ডাফরিন হাসপাতালে। আর তাতেই থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়।

আবার বিতর্কে নাম জড়াল নির্মল মাজির। এক প্রসূতি প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে সরকারি হাসপাতালে এসেছিলেন। কিন্তু তাঁর অবস্থা জটিল বলে নার্সিংহোমে সিজার করার কথা বলা হয়। সেখানে সিজারের আশ্বাস দিয়ে তাঁর স্বামীর কাছ থেকে ১২ হাজার টাকা নেওয়া হয় বলে অভিযোগ। কিন্তু প্রসবের পর দেখা গেল, গোটা বিষয়টি হয়েছে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের অ্যানেক্স লেডি ডাফরিন হাসপাতালে। আর তাতেই থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়।

ঠিক কী অভিযোগ উঠেছে?‌ থানায় দায়ের করা অভিযোগ অনুযায়ী, নার্সিংহোমে চিকিৎসার নাম করে ১২ হাজার টাকা নেওয়া হয়েছে। অথচ তা হয়নি। বরং কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের অ্যানেক্স লেডি ডাফরিন হাসপাতালে প্রসূতির প্রসব হয়। মুচিপাড়া থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন প্রসূতির স্বামী। তাঁর অভিযোগ, কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের স্নাতকোত্তরের এক পড়ুয়া চিকিৎসকের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় নাম জড়িয়েছে রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান তথা বিধায়ক–চিকিৎসক নির্মল মাজিরও।

কেন নির্মল মাজির নাম জড়িয়ে পড়ল?‌ কলকাতা মেডিক্যাল কলেজেরই চুক্তিভিত্তিক কর্মী রাজু মহেশ। তাঁর দাবি, স্ত্রী পুতুল হাজরা অন্তঃসত্ত্বা থাকাকালীন তিনি চিকিৎসক রাজেশ বিশ্বাসের পরামর্শ নিতেন। এই রাজেশ বিশ্বাস তাঁকে বলেছিলেন, জটিলতা থাকায় নার্সিংহোমে সিজার করতে হবে। নির্মল মাজিকে বলে তিনি টাকা কমিয়ে দেবেন। কিন্তু দেখা যায়, ওটা সরকারি হাসপাতাল। তখন এই টাকা নিয়ে উভয়ের মধ্যে বচসা হয়। এই বিষয়ে রাজেশের সাফাই, ‘ওই রোগীর স্বামীকে চাপ দিয়ে মিথ্যা অভিযোগ করানো হয়েছে।’‌ বিষয়টি নিয়ে নির্মল মাজি বলেন, ‘তদন্ত চলছে। সেখানেই সত্যিটা প্রকাশ পাবে।’

এই ঘটনার আগে একাধিক ঘটনায় নির্মল মাজির নাম জড়িয়েছে। আবারও তাঁকে নিয়ে বিতর্ক দানা বেঁধেছে। কিন্তু এই অভিযোগ পেয়ে পুলিশ তদন্ত করতে শুরু করেছে। তবে এখনও জানা যায়নি কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের স্নাতকোত্তরের পড়ুয়া চিকিৎসকের নাম। বিষয়টি নিয়ে হাসপাতাল জুড়ে চর্চা শুরু হয়েছে।

বন্ধ করুন