বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > আবার পার্কস্ট্রিটে অগ্নিকাণ্ড, কালো ধোঁয়ায় ঢাকল আকাশ, দমকলের ১২ ইঞ্জিন পৌঁছয়
পার্ক স্ট্রিটের এপিজে হাউসে আগুন লাগল। ছবি সৌজন্য–এএনআই।
পার্ক স্ট্রিটের এপিজে হাউসে আগুন লাগল। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

আবার পার্কস্ট্রিটে অগ্নিকাণ্ড, কালো ধোঁয়ায় ঢাকল আকাশ, দমকলের ১২ ইঞ্জিন পৌঁছয়

  • বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার পর দমকলের ১২টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে গিয়েছে। এই বিল্ডিং থেকে সকলকে নীচে নামানো হয়েছে। ঘটনাস্থলে পরিবহন ও আবাসন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম পৌঁছে যান। দমকল মন্ত্রী সুজিত বসুও হাজির হন।

সকালে মদন মিত্রের বাড়ির পর এবার পার্ক স্ট্রিটের এপিজে হাউসে আগুন লাগল। আর তা নিয়ে রীতিমতো মধ্য কলকাতায় আতঙ্কের বাতাবরণ তৈরি হয়েছে। কারণ এই এলাকাতেই ভয়াবহ আগুন লেগেছিল স্টিফেন কোর্টে। সেই স্মৃতি যেন ফের উসকে দিল মঙ্গলবারের অগ্নিকাণ্ড। সূত্রের খবর, পার্ক স্ট্রিটের এপিজে হাউসের ৫ তলায় মঙ্গলবার দুপুরে এই আগুন লাগে। বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার পর দমকলের ১২টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে গিয়েছে। এই বিল্ডিং থেকে সকলকে নীচে নামানো হয়েছে। ঘটনাস্থলে পরিবহন ও আবাসন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম পৌঁছে যান। দমকল মন্ত্রী সুজিত বসুও হাজির হন।

স্থানীয় সূত্রে খবর, এখানের সার্ভার রুমে আগুন লাগে। আগুন নেভাতে ল্যাডার ব্যবহার করা হচ্ছে। কাচ ভেঙে ধোঁয়া বের করার চেষ্টা চালাচ্ছেন দমকল কর্মীরা। গোটা পার্ক স্ট্রিট এলাকা কালো ধোঁয়ায় ভরে গিয়েছে। রাজ্যজুড়ে বিধিনিষেধ চলায় সেভাবে রাস্তায় গাড়ির সংখ্যা নেই। পথচারীর সংখ্যাও হাতেগোনা। এই এলাকাতেই রয়েছে দমকল কেন্দ্র। তাই দ্রুত তারা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। এই ঘটনায় ফিরহাদ হাকিম জানান, একটি মেডিক্যাল কোম্পানির অফিস ছিল। সেখানে আগুন লেগে যায়। কিছুক্ষণের মধ্যে নিভে যাবে।

সূত্রের খবর, এপিজে বিল্ডিংয়ে আজ টিকাকরণ চলছিল। তখন ওই বিল্ডিং থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখা যায়। এখনও আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি। ওই বিল্ডিংয়ের ৫ তলায় একটি মেডিক্যাল স্টোর তৈরি করা হয়েছিল। দাহ্য পদার্থের কারণে আগুন দ্রুতগতিতে ছড়িয়ে পড়েছে। বিল্ডিংয়ের কাচ ভেঙে আগুন বের করার চেষ্টা চালানো হয়। তবে কী কারণে আগুন লাগল তা এখনও স্পষ্ট নয়। প্রাথমিকভাবে অনুমান করা হচ্ছে, শর্ট সার্টিকের জেরেই এই আগুন লেগে থাকতে পারে।

এদিন দুপুর নাগাদ আগুন লাগে। কিছুক্ষণের মধ্যেই কালো ধোঁয়া দেখা যায় এপিজে হাউসের উপর থেকে। মেডিক্যাল স্টোরের সার্ভার রুমে এই আগুন লেগেছে। চেষ্টা চলছে যাতে আগুন নিয়ে আসা যায়। প্রায় দু’‌ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন খানিকটা নিয়ন্ত্রণে আসে বলে খবর। তবে এখনও সেখানে চাপা আতঙ্ক রয়েছে বলে খবর মিলেছে।

বন্ধ করুন