বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > একাদশীর দিনেও মর্মান্তিক দুর্ঘটনা, মোটরবাইক থেকে ছিটকে পড়ে মৃত্যু যুবকের
লেকটাউনগামী সেতুতে হল মর্মান্তিক মোটরবাইক দুর্ঘটনা।
লেকটাউনগামী সেতুতে হল মর্মান্তিক মোটরবাইক দুর্ঘটনা।

একাদশীর দিনেও মর্মান্তিক দুর্ঘটনা, মোটরবাইক থেকে ছিটকে পড়ে মৃত্যু যুবকের

  • ইএম বাইপাসের দিক থেকে লেকটাউনের দিকে বেপরোয়া গতিতে যাওয়ার সময় সেতুর গার্ডওয়ালে ধাক্কা মারে মোটরবাইক।

সেতুর উপর দুর্ঘটনা যেন কিছুতেই থামছে না। সেটা মা উড়ালপুল হোক বা লেকটাউনের সেতু। এবার ইএম বাইপাস লেকটাউনগামী সেতুতে হল মর্মান্তিক মোটরবাইক দুর্ঘটনা। আর তার ফলে মৃত্যু হয়েছে একজন যুবকের। আহত হয়েছেন আরও এক যুবক। তাঁর অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে খবর। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন লেকটাউন থানার পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, একাদশীর সকালে ইএম বাইপাসের দিক থেকে লেকটাউনের দিকে বেপরোয়া গতিতে যাওয়ার সময় সেতুর গার্ডওয়ালে ধাক্কা মারে মোটরবাইক। তাতে উল্টে যায় মোটরবাইকটি। তখন ছিটকে পড়েন দুই যুবক। রক্তাক্ত অবস্থায় রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা তাঁদের হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসকরা শচীন ওঝাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। আর এক যুবকের নাম দেবাঞ্জন পাল। দমদম এলাকার বাসিন্দা। তিনি চিকিৎসাধীন। শচীনে বাড়ি ভদ্রেশ্বরে।

উল্লেখ্য, দশমীর দিন রাতেও ইএম বাইপাসে গাড়ি উল্টে যায়। তবে মৃত্যুর কোনও ঘটনা ঘটেনি। এখানেও অ্যাপ ক্যাব বেপরোয়া গতিতে ডিভাইডারে ধাক্কা মারে। আর একাদশীর সকালেই ঘটল মর্মান্তিক মোটরবাইক দুর্ঘটনা। পঞ্চমীর রাতেও দুর্ঘটনা ঘটে চিংড়িহাটা এলাকায়। সেখানেও রাস্তার ডিভাইডারে সজোরে ধাক্কা মারে মোটরবাইকটি। তাতে যুবকের দেহ ও মুণ্ড আলাদা হয়ে যায়।

এই পর পর সেতুর দুর্ঘটনা নিয়ে চিন্তিত পুলিশও। অনেকেই স্পিড লিমিটার মানছেন না। তাই দুর্ঘটনা বেড়ে চলেছে। চিংড়িঘাটা মোড়–ইএম বাইপাসে একাধিক স্পিড লিমিটার রয়েছে। তারপরও ঘটে চলেছে পথ দুর্ঘটনা বিশেষ করে মোটরবাইক দুর্ঘটনা। সেতুতে উঠে অধিকাংশ গাড়িই বেপরোয়া হয়ে ওঠে। সেই গতিরই মাশুল গুনতে হচ্ছে জীবন দিয়ে।

বন্ধ করুন