বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বুধবার সন্ধ্যায় গোটা বিশ্বে দূষণে তৃতীয় স্থানে কলকাতা

বুধবার সন্ধ্যায় গোটা বিশ্বে দূষণে তৃতীয় স্থানে কলকাতা

প্রতিকি ছবি

তালিকায় প্রথম স্থানে রয়েছে লাহৌর। সেখানে দূষণের মাত্রা ১৮৭। তার পরই রয়েছে মোঙ্গলিয়ার রাজধানী উলানবটর। সেখানে দূষণের মাত্রা ১৮১। কলকাতার পরেই চতুর্থ স্থানে রয়েছে করাচি, পঞ্চমে চিনের শেনইয়াং, ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে দিল্লি।

শীত পড়তেই উত্তরভারতজুড়ে বাড়তে শুরু করেছে বায়ুদূষণ। গোটা উত্তরভারতে কার্যত বাতাসের সঙ্গে শরীরে ঢুকছে বিষ। ইতিমধ্যে দিল্লির দূষণের জেরে বন্ধ হয়েছে স্কুল ও নির্মাণকাজ। তবে বুধবার সন্ধ্যায় দিল্লিকেও হারিয়ে দিল কলকাতা। বেসরকারি বায়ুদূষণ পরিমাপ সংস্থার পরিসংখ্যান অন্তত তাই বলছে। শীতের শুরুতেই বুধবার সন্ধ্যায় কলকাতায় বায়ুদূষণে উঠে এল গোটা বিশ্বে তৃতীয় স্থানে।

IQ Air নামে ওই বেসরকারি সংস্থার পরিসংখ্যান বলছে বুধবার সন্ধ্যায় গোটা বিশ্বে বায়ুদূষণে তৃতীয় স্থানে রয়েছে কলকাতা। এদিন রাত ৮টায় শহরে বাতাসে দূষণের মাত্রা ছিল ১৭৭। যা দিল্লির থেকেও বেশি।

তালিকায় প্রথম স্থানে রয়েছে লাহৌর। সেখানে দূষণের মাত্রা ১৮৭। তার পরই রয়েছে মোঙ্গলিয়ার রাজধানী উলানবটর। সেখানে দূষণের মাত্রা ১৮১। কলকাতার পরেই চতুর্থ স্থানে রয়েছে করাচি, পঞ্চমে চিনের শেনইয়াং, ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে দিল্লি। সেখানে দূষণের মাত্রা ১৬৩।

শীতের শুরুতেই দূষণের মাত্রা বাড়ায় উদ্বিগ্ন চিকিৎসকরা। তারা বলছেন, দূষণের মাত্রা বাড়লে বাড়ি থেকে না বেরনোই ভালো। বিশেষ করে মেলা বা অন্যান্য জায়গায় যেখানে মানুষের ভিড় বেশি হয় সেখানে দূষণের মাত্রা এর কয়েকগুণ হয়। ফলে সেই সব জায়গা থেকে দূরে থাকাই ভালো। বাড়ির বাইরে বেরোলে N95 মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত শ্বাসকষ্টের রোগীদের।

 

বন্ধ করুন