অমিত শাহকে সম্বর্ধনা জানাচ্ছেন দিলীপ ঘোষ। রবিবার কলকাতার শহিদ মিনার ময়দানে।
অমিত শাহকে সম্বর্ধনা জানাচ্ছেন দিলীপ ঘোষ। রবিবার কলকাতার শহিদ মিনার ময়দানে।

পুরভোটের মুখে এসে বিধানসভার মন্ত্র দিয়ে গেলেন শাহ, চুপ দিল্লি হিংসা নিয়েও

  • এদিন দিল্লি হিংসা নিয়েও একটা শব্দ খরচ করেননি শাহ। কার ষড়যন্ত্রে ৪২টা মানুষের প্রাণ চলে গেল তা নিয়ে কোনও কথা বলেননি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

কথা ছিল, পুরভোট নিয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের বার্তা দেবেন অমিত শাহ। সেই মতো মানসিক প্রস্তুতিও নিয়ে এসেছিলেন বিজেপি কর্মীরা। কিন্তু গোটা বক্তৃতায় অমিত শাহের মুখে পুরভোট নিয়ে একটা শব্দ শোনা গেল না। চিরাচরিত ভাষণে শাহ বুঝিয়ে দিলেন লক্ষ্য ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচন। সঙ্গে এদিন লঞ্চ হল ‘আর নয় অন্যায়’ নামে বিজেপির একটি অভিযানের সূচনা করেন তিনি। সব মিলিয়ে অমিত শাহের ভাষণে বেশ নিরাশ সভা ফেরত বিজেপি কর্মীরা।

পুরভোটে ঝাঁপিয়ে পড়ার বার্তা দিতেই কলকাতায় আসছেন অমিত শাহ। এমনটাই জানানো হয়েছিল বিজেপির তরফে। এপ্রিলে পশ্চিমবঙ্গের ১০০-র বেশি পুরসভায় নির্বাচন হওয়ার কথা। ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের আগে যা পাখির চোখ করেছে বিজেপি। অনেকেই বলছেন, পুরভোট আসলে বিধানসভার সেমিফাইনাল। পুরভোটের ঘুঁটি সাজাতে আগে থেকেই ময়দানে নেমেছে বিজেপি। কিন্তু এদিন তা নিয়ে কিছুই বললেন না শাহ। তাঁর গোটা বক্তব্যই ছিল ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়ে।

এমনকী এদিন দিল্লি হিংসা নিয়েও একটা শব্দ খরচ করেননি শাহ। কার ষড়যন্ত্রে ৪২টা মানুষের প্রাণ চলে গেল তা নিয়ে কোনও কথা বলেননি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। দিল্লি নির্বাচনের পর বিদ্বেষমূলক স্লোগান দেওয়া ভুল হয়েছিল বলে স্বীকার করেছিলেন শাহ। কিন্তু কলকাতায় তা নিয়ে কিছুই বললেন না তিনি।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পুরভোট নিয়ে সরসরি ময়দানে নামতে চাইছেন না বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব। কারণ এই ভোট পরিচালনা করবে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। ফলে গত কয়েকটি ভোটের মতো হিংসা ও বেনিয়মের আশঙ্কা রয়েছে এই নির্বাচনে। প্রশাসনকে ব্যবহার করে ফলাফল প্রভাবিত করতে পারে তৃণমূল। তাই এই নির্বাচনে কেন্দ্রীয় নেতাদের নেতৃত্বে বিজেপির হার হলে মনবল ভেঙে পড়বে বিজেপি কর্মীদের। তাই জলে নামতে নারাজ তারা।



বন্ধ করুন