বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > EM Bypass: অ্যাপ ক্যাব চালককে রাস্তায় ফেলে বেদম মারধর, চতুর্থীর মাঝরাতে তপ্ত বাইপাস

EM Bypass: অ্যাপ ক্যাব চালককে রাস্তায় ফেলে বেদম মারধর, চতুর্থীর মাঝরাতে তপ্ত বাইপাস

অ্যাপ ক্যাব চালককে মারধর করার অভিযোগ উঠল দুই মদ্যপ যুবকের বিরুদ্ধে। ছবি (‌সংগৃহীত)‌

এই অভিযোগ থানায় জানানো হলে পুলিশঘটনাস্থলে পৌঁছয়। আর দুই মদ্যপ যুবককে আটক করে। ওই অ্যাপ ক্যাব চালক প্রগতি ময়দান থানায় ওই দুই যুবকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন। সেই অভিযোগ খতিয়ে দেখার পর পুলিশ তদন্ত শুরু করে। আর দুই মদ্যপ যুবককে আটক করে। যা নিয়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

চতুর্থী থেকেই মানুষজন পুজোমণ্ডপমুখী। রাস্তায় নেমেছে জনতার ঢল। তবে বেশি রাত পর্যন্ত থাকতে দেখা যাচ্ছে না। রাত পোহালেই মহাষষ্ঠী। তখন বেশি রাত পর্যন্ত মানুষজনকে দেখা যাবে। কিন্তু চতুর্থীর মাঝরাতে মহিলা যাত্রীকে নিয়ে যাওয়ার সময় অ্যাপ ক্যাব চালককে মারধর করার অভিযোগ উঠল দুই মদ্যপ যুবকের বিরুদ্ধে। ইএম বাইপাস এবং মাঠপুকুরের মোড়ের মাঝখানে ওই ঘটনা ঘটেছে বলে খবর। পুলিশ দুই মদ্যপ যুবককে আটক করেছে।

ঠিক কী তথ্য পেয়েছে পুলিশ?‌ আজ, শুক্রবার পুলিশ সূত্রে খবর, চতুর্থীর মাঝরাতে এক মহিলা যাত্রীকে নিয়ে কলকাতা বিমানবন্দরের দিক থেকে ইএম বাইপাস ধরে রুবির দিকে যাচ্ছিল অ্যাপ ক্যাবটি। তখন ঘড়িতে রাত ৩টে। আর তখনই বাইপাস–মাঠপুকুর মোড়ের মাঝে জোর করে ওই অ্যাপ ক্যাবের চালককে গাড়ি দাঁড় করাতে বাধ্য করা হয়। আর দুই মদ্যপ মোটরবাইক আরোহী যুবক গাড়ি থেকে চালককে নামিয়ে এনে মারধর করতে থাকে। তাদের আটক করা হয়েছে।

ঠিক কী ঘটেছে বাইপাসে?‌ জানা গিয়েছে, ঝামেলার সূত্রপাত হয় রেষারেষি নিয়ে। ওই অ্যাপ ক্যাব চালক গাড়ির গতি বাড়িয়ে এগিয়ে যাচ্ছিল। আর সেখান দিয়ে যাওয়ার রাস্তা পাচ্ছিল না ওই মদ্যপ যুবকরা। তখন অ্যাপ ক্যাব দাঁড় করিয়ে দেয় তারা। আর নেমে চালককে প্রশ্ন করে, কেন তাঁদের পাশ কাটিয়ে যেতে দেওয়া হচ্ছে না?‌ উত্তরে ক্যাব চালক এই অভিযোগ অস্বীকার করেন। তখনই তাঁকে নামিয়ে এনে রাস্তায় ফেলে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। এমনকী ভাঙচুর চালানো হয় অ্যাপ ক্যাবে।

পুলিশ ঠিক কী করল?‌ এই অভিযোগ থানায় জানানো হলে পুলিশঘটনাস্থলে পৌঁছয়। আর দুই মদ্যপ যুবককে আটক করে। ওই অ্যাপ ক্যাব চালক প্রগতি ময়দান থানায় ওই দুই যুবকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন। সেই অভিযোগ খতিয়ে দেখার পর পুলিশ তদন্ত শুরু করে। আর দুই মদ্যপ যুবককে আটক করে। যা নিয়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

বন্ধ করুন