বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > যত্নের কোনও খামতি রাখছেন না অন্য বন্দিরা, জেলেও সেলিব্রিটি অর্পিতা
অর্পিতাকে আদালতে পেশ করছে ইডি। (Shyamal Maitra)

যত্নের কোনও খামতি রাখছেন না অন্য বন্দিরা, জেলেও সেলিব্রিটি অর্পিতা

  • সোমবার অর্পিতার সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন ২ জন আইনজীবী। অর্পিতা তাঁদের কাছে জানতে চান, মায়ের দেখভাল কে করছে? কুকুরগুলোর ভবিষ্যৎ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

আদালত তাঁকে বিশেষ বন্দির স্বীকৃতি না দিলেও আলিপুর মহিলা সংশোধনাগারে সেলিব্রিটি হওয়ার সুবিধা পাচ্ছেন অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। তাঁকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসছেন সেলের অন্য বন্দিরা। এরই মধ্যে জেল কর্তৃপক্ষের কাছে পড়ার জন্য বই, সঙ্গে খাতা ও কলম চেয়েছেন অর্পিতা।

আলিপুর মহিলা সংশোধনাগার সূত্রে জানা গিয়েছে, অর্পিতাকে জেলের ২ নম্বর ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে। সেখানে আগে ৪০ জন বন্দি থাকতেন। তাদের মধ্যে আচরণ ভালো এমন ২০ জন বন্দিকে সেখানে রেখে বাকিদের অন্যত্র পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। ওই ২০ জন বন্দিই রীতিমতো অর্পিতার যত্ন আদ্দি করছেন। কেউ তাঁর চুল আঁচড়ে দিচ্ছেন তো কেউ এনে দিচ্ছেন খাবার। সিনেমার নায়িকা তাঁদের সঙ্গে একই জেলে বন্দি ভেবেই আহ্লাদে আটখানা অনেকে।

 

সোমবার অর্পিতার সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন ২ জন আইনজীবী। অর্পিতা তাঁদের কাছে জানতে চান, মায়ের দেখভাল কে করছে? কুকুরগুলোর ভবিষ্যৎ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তাঁর নেইল আর্ট পার্লারের কর্মীদের বেতন দেওয়া নিয়েও উদ্বিগ্ন দেখায় তাঁকে।

সঙ্গে তাঁরা জানিয়েছেন, জেলের খাবার মুখে রুচছে না অর্পিতার। জেলে মাছ, মাংস, ডিম কিচ্ছু দেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেন তিনি। রাতে রুটি দেওয়া নিয়েও আপত্তি তাঁর। জেলের তরফে জানানো হয়েছে যে সেখানে খাবারের নির্দিষ্ট তালিকা রয়েছে। সেই তালিকা অনুসারে খাবার দেওয়া হয় বন্দিদের। আপাতত ১৮ অগাস্ট পর্যন্ত জেল হেফাজতে থাকবেন অর্পিতা। ওই দিন আদালতে পেশ করলে জামিনের আবেদন করতে পারেন তাঁর আইনজীবীরা।

 

বন্ধ করুন