বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > নিজের ষষ্ঠ শ্রেণি পাশ বোনকে গ্রুপ ডির চাকরি করে দিয়েছিলেন অর্পিতা
অর্পিতা মুখোপাধ্যায়।

নিজের ষষ্ঠ শ্রেণি পাশ বোনকে গ্রুপ ডির চাকরি করে দিয়েছিলেন অর্পিতা

  • কামারহাটি পুরসভার ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা অর্পিতার বোন। তাঁর স্বামী কল্যাণ ধর জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন ধরে অর্পিতার গাড়ি চালাতেন তিনি। বেলঘরিয়ার রথতলার ক্লাব টাউনের ফ্ল্যাটে অর্পিতাকে নিয়ে বহুবার গিয়েছেন তিনি।

অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের কীর্তির তালিকায় যোগ হল আরও শিরোপা। অভিযোগ, নিজের ষষ্ঠ শ্রেণি পাশ বোনকে শিক্ষা দফতরে গ্রুপ ডির চাকরি পাইয়ে দিয়েছেন অর্পিতা। একথা স্বীকার করে নিয়েছেন অর্পিতার বোনের স্বামী কল্যাণ ধর। বুধবারই সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখ খুলেছিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার প্রকাশ্যে এসেছে চাঞ্চল্যকর এই তথ্য।

কামারহাটি পুরসভার ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা অর্পিতার বোন। তাঁর স্বামী কল্যাণ ধর জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন ধরে অর্পিতার গাড়ি চালাতেন তিনি। বেলঘরিয়ার রথতলার ক্লাব টাউনের ফ্ল্যাটে অর্পিতাকে নিয়ে বহুবার গিয়েছেন তিনি। ওদিকে তিনিই না কি অর্পিতার তিনটি কোম্পানির ডিরেক্টর। শুধু ডিরেক্টর নন, সেগুলির ৫০ শতাংশের মালিকানাও রয়েছে তার কাছে। একথা শুনে বুধবার আকাশ থেকে পড়েন কল্যাণ। বলেন, এসব আমি কিছুই জানি না। আমি গাড়ি চালাতাম। কোম্পানির ডিরেক্টর কবে হলাম জানা নেই। ইডি ডাকলে তিনি তদন্তে সাহায্য করবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

ওদিকে নিজের বোনকে অর্পিতা শিক্ষা দফতরে গ্রুপ ডির চাকরি পাইয়ে দিয়েছেন বলে দাবি স্থানীয়দের। ষষ্ঠ শ্রেণি পাশ অর্পিতার বোন এলাকায় পরিচারিকার কাজ করতেন। বছরখানেক আগে হঠাৎ শিক্ষা দফতরে চাকরি পান তিনি। তবে এব্যাপারে কিছু বলতে রাজি হননি কল্যাণ। তবে এতে একপ্রকার স্পষ্ট, অর্পিতা - পার্থ যে বেআইনিভাবে চাকরি দিতেন তা জানা ছিল তাঁর।

 

বন্ধ করুন