বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখলেন কংগ্রেস সাংসদ, উঠে এলো চাঞ্চল্যকর কাহিনী
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখলেন কংগ্রেস সাংসদ, উঠে এলো চাঞ্চল্যকর কাহিনী

  • কিন্তু ততক্ষণে বহু মানুষ কাজ হারিয়ে বেকারের তকমা পেয়েছেন। সংসার চালাতে কঠিন পথে হাঁটতে হয়।

করোনাভাইরাস রক্তচক্ষু দেখাতে শুরু করলে গোটা দেশজুড়ে লকডাউন ডাকা হয়। তারপর ধীরে ধীরে সেই মহামারী কমতে শুরু করলে আনলক হতে শুরু করে গোটা দেশ। কিন্তু ততক্ষণে বহু মানুষ কাজ হারিয়ে বেকারের তকমা পেয়েছেন। সংসার চালাতে কঠিন পথে হাঁটতে হয়। কিন্তু তাতেও সমস্যা মেটেনি। কেউ চিকিৎসার জন্য, কেউ সংসার চালাতে বেছে নেন শরীরের কিডনি বিক্রি করার পথ। আর সেখানেই তৈরি হলো একটি কিডনি–চক্র। যারা কম দামে মানুষের কিডনি কিনে মোটা টাকায় বিক্রি করে মুনাফা করে চলেছে।

এই কিডনি বিক্রি করে সংসার চালানোর ঘটনা ঘটে বিজেপি শাসিত রাজ্য অসমে। তবে কিডনি বিক্রি করতে অনেকেই বাংলায় পাড়ি দিয়েছেন। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে পাচার চক্রের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দিলেন লোকসভায় কংগ্রেসের উপনেতা গৌরব গগৈ। তিনি অসমের কালিয়াবোরে কংগ্রেস সাংসদ। চিঠিতে তিনি লিখেছেন, ‘বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের খবরে প্রকাশ পেয়েছে অসমের বিভিন্ন জেলায় মানব অঙ্গ পাচার চক্র সক্রিয় হয়েছে। গ্রামের গরিব মানুষদের মূল টার্গেট করেছে ওই পাচারচক্রটি। ৩–৪ লক্ষ টাকার বিনিময়ে তাদের কিডনি নিয়ে নেওয়া হচ্ছে।’

এই পাচারকারীদের সূত্র কলকাতায় মিলেছে বলেও চিঠিতে উল্লেখ করেছেন গৌরব। এই পাচার চক্রের বিরুদ্ধে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে কড়া পদক্ষেপ করতে অনুরোধ করেছেন তিনি। রাজ্যের পুলিশ প্রশাসনকে ওই পাচারকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও লিখেছেন চিঠিতে। করোনা মহামারি পরিস্থিতিতে গরীব মানুষের অবস্থা আরও শোচনীয় হয়েছে। এই অবস্থায় মানব অঙ্গ পাচারকারীদের আক্রমণ থেকে গরীব মানুষদের বাঁচাতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশাসনকে তদন্ত শুরু করতে অনুরোধ করেছেন অসমের কংগ্রেস সাংসদ। আর তাতেই স্পষ্ট হয়ে উঠল ডবল ইঞ্জিন সরকারের আমলে সাধারণ মানুষের দুর্দশার কথা।

বন্ধ করুন