বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বিজেপির প্ররোচনাতেই নড্ডার কনভয়ে হামলা, দাবি সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের
বৃহস্পতিবার তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক বৈঠকে সুব্রত মুখোপাধ্যায়। 
বৃহস্পতিবার তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক বৈঠকে সুব্রত মুখোপাধ্যায়। 

বিজেপির প্ররোচনাতেই নড্ডার কনভয়ে হামলা, দাবি সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের

  • সঙ্গে তাঁর দাবি, ‘কেউ যদি অন্যায় করেন, সে আমাদের দলের কেউ হলেও আমরা তা খতিয়ে দেখবো। এবং তার আইনমাফিক শাস্তি হবে’।

ডায়মন্ড হারবারের পথে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির কনভয়ে হামলার ঘটনাকে বিজেপির পরিকল্পিত বলে দাবি করলেন বরিষ্ঠ তৃণমূল নেতা তথা রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার দুপুরে তৃণমূল ভবনে এক সাংবাদিক বৈঠকে তিনি দাবি করেন, কলকাতায় পৌঁছে থেকেই প্ররোচনা তৈরির চেষ্টা করছেন নড্ডা। যা নিন্দনীয়। 

এদিন সুব্রতবাবু বলেন, ‘উনি যখন যাচ্ছিলেন গাড়ি থেকে নানা রকম ভিডিয়ো করে ইচ্ছাকৃতভাবে একটা প্ররোচনা তৈরি করা হচ্ছিল। পরবর্তীকালে যে ঘটনাগুলো ঘটেছে সেগুলো পরিকল্পনামাফিক ঘটানো হয়েছে’। 

সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের অভিযোগ, ‘উনি এসেই মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির কাছে যাওয়ার জন্য একটা প্ররোচনা তৈরি করছেন। কখনো ডায়মন্ড হারবারে যাওয়ার পথে প্ররোচনা তৈরি করছেন। পরিকল্পিতভাবে প্রচার পেতে উনি এসেছেন। রাজনীতির নাম করে পরিকল্পনামাফিক শান্তিপ্রিয় পশ্চিমবঙ্গকে অশান্ত করার একটা চেষ্টা করছেন। আমাদের দলের নামে একটা বদনাম করার চেষ্টা করছেন। এই পরিকল্পনা তাদের স্বার্থক হবে না’। 

সঙ্গে তাঁর দাবি, ‘কেউ যদি অন্যায় করেন, সে আমাদের দলের কেউ হলেও আমরা তা খতিয়ে দেখবো। এবং তার আইনমাফিক শাস্তি হবে’। তৃণমূল কর্মীদের সুব্রতবাবুর পরামর্শ, ‘প্ররোচনায় পা দেবেন না। ওদের থেকে দূরে থাকুন’।

বৃহস্পতিবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার ডায়মন্ড হারবারে কর্মিসভায় যোগ দিতে যাওয়ার পথে বিজেপি সভাপতি জেপি নড্ডার কনভয় একাধিক জায়গায় বাধা পায়। কনভয় লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি হয় পথে। যাতে কনভয়ের সামনের দিকের প্রায় সমস্ত গাড়ির কাচ ভেঙে গিয়েছে। আহত হয়েছেন মুকুল রায়, কৈলাস বিজয়বর্গীয়-সহ একাধিক বিজেপি নেতা ও তাঁদের নিরাপত্তারক্ষীরা। আহত হয়েছেন একাধিক সাংবাদিক। 

 

বন্ধ করুন