HT বাংলা থেকে সেরা খবর পড়ার জন্য ‘অনুমতি’ বিকল্প বেছে নিন
বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মেখলিগঞ্জের স্কুলেই চাকরির নিয়োগপত্র পেলেন ববিতা, এবার অপেক্ষা শুধু যোগদানের
ববিতা সরকার।

মেখলিগঞ্জের স্কুলেই চাকরির নিয়োগপত্র পেলেন ববিতা, এবার অপেক্ষা শুধু যোগদানের

  • ইন্দিরা বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা রঞ্জনা রায় বসুনিয়া বলেন, ববিতা যে যোগ দেবেন তা মৌখিক ভাবে জানানো হয়েছে। তবে কোনও নথি পাইনি। তাই কবে যোগ দেবেন তা জানি না। সূত্রের খবর, তাঁর মাসিক বেতন হতে চলেছে ৪২,৬০০ টাকা।

চার বছর পর আদালতের নির্দেশে নিজের প্রাপ্য চাকরির নিয়োগপত্র পেলেন ববিতা সরকার। আদালতে নির্দেশে তাঁকে মেখলিগঞ্জ ইন্দিরা বালিকা বিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের শিক্ষকের নিয়োগপত্র দিয়েছে স্কুল সার্ভিস কমিশন। ২০১৮ সাল থেকে ওই স্কুলেই তাঁর পদ দখল করে বসেছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী পরেশ অধিকারীর কন্যা অঙ্কিতা। আগেই তাঁকে চাকরি থেকে বহিষ্কারের নির্দেশ দিয়েছিলেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

এদিন নিয়োগপত্র পেয়ে ববিতা বলেন, ‘আদালতের নির্দেশে সব স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে। আমি সোমবার সুপারিশ পত্র পেয়েছি। আজ স্কুল সার্ভিস কমিশন থেকে নিয়োগপত্র সংগ্রহ করলাম। এবার চাকরিতে যোগদান করলে বৃত্ত সম্পূর্ণ হবে।’

ইন্দিরা বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা রঞ্জনা রায় বসুনিয়া বলেন, ববিতা যে যোগ দেবেন তা মৌখিক ভাবে জানানো হয়েছে। তবে কোনও নথি পাইনি। তাই কবে যোগ দেবেন তা জানি না। সূত্রের খবর, তাঁর মাসিক বেতন হতে চলেছে ৪২,৬০০ টাকা।

২০১৬ সালের ডিসেম্বরে SSC পরীক্ষায় বসেছিলেন ববিতা। ২০১৭ সালের নভেম্বরে প্রকাশিত হয় ফল। তাতে ওয়েটিং লিস্টে ১ নম্বরে নাম ছিল ববিতার। কিন্তু পরেশ অধিকারী ফরওয়ার্ড ব্লক ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করার কয়েক দিনের মধ্যে রদবদল হয় ওয়েটিং লিস্টে। সবার ওপরে চলে আসে মন্ত্রীকন্যা অঙ্কিতা অধিকারীর নাম। কেন তার নাম পিছিয়ে গেল জানতে স্কুল সার্ভিস কমিশনকে চিঠি দিয়েও জবাব পাননি ববিতা। এর পর কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন তিনি।

রায়ে অঙ্কিতাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করার পাশাপাশি ৪৩ মাস ধরে তাঁর বেতনের সমস্ত টাকা ফেরত দিতে নির্দেশ দেয় আদালত। ববিতার চাকরি ববিতাকে ফিরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।