বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বিধানসভায় গলা ছেড়ে গান বাবুল সুপ্রিয়র, আমার মনে বলে চাই চাই গো…আবার কী চাইছেন?
বাবুল সুপ্রিয়। (ফাইল ছবি) (PTI)

বিধানসভায় গলা ছেড়ে গান বাবুল সুপ্রিয়র, আমার মনে বলে চাই চাই গো…আবার কী চাইছেন?

  • স্পিকারের কথায় যাবতীয় অস্বস্তি কেটে যায় তাঁর। স্পিকার জানিয়ে দেন, অদিতি মুন্সির মতো শিল্পীরাও বিধানসভায় গান গেয়েছেন। এতে বিধানসভার কৌলিন্য় নষ্ট হয় না। এরপরই স্পিকারের কাছ থেকে অভয় পেয়ে গলা ছেড়ে গান গাইলেন বাবুল, আমার মন বলে চাই.. চাই গো…।

বিধানসভার গুরুগম্ভীর পরিবেশ। এদিকে আবার কৃষি বিলের সমর্থনে বলতেও উঠেছিলেন বিধায়ক বাবুল সুপ্রিয়। তখনই জয় শ্রীরাম ধ্বনি দিতে শুরু করেন বিজেপি বিধায়করা। তার মধ্যেই তৃণমূলের বিধায়কদের অনুরোধ ভেসে এল বিধানসভায়, একটা গান হয়ে যাক। তবে এদিন হেমন্ত মুখোপাধ্য়ায়ের জন্মদিন। সেকারনেই বোধহয় শাসক দলের বিধায়করা বাবুলের গলায় গান শোনার জন্য এতটা উন্মুখ হয়েছিলেন। আর সেই সঙ্গেই স্পিকারও বললেন, আজ হেমন্ত মুখোপাধ্য়ায়ের জন্মদিন। একটা গান শুনতে চাই আপনার কাছে। শুধু আমি নই, সবাই চাইছে।

যে বাবুল প্রাথমিকভাবে এড়িয়ে গিয়েছিলেন গান গাওয়ার অনুরোধের প্রসঙ্গ। তিনিই গলা ছেড়ে গান ধরলেন, আমার মন বলে চাই..চাই গো.. বাবুলের গলায় গান শুনে মুগ্ধ বিধায়করা। গান শেষ করে বাবুল বলেন, এত ভালো ভালো বিল পাস হচ্ছে বিধানসভায় যে আমার মনটাও চাই চাই করে উঠল।

তবে বিধানসভা গান গাওয়া নিয়ে হয়তো কিছুটা অস্বস্তিতেই ছিলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বর্তমানে শাসকদলের বিধায়ক বাবুল সুপ্রিয়। তবে স্পিকারের কথায় যাবতীয় অস্বস্তি কেটে যায় তাঁর। স্পিকার জানিয়ে দেন, অদিতি মুন্সির মতো শিল্পীরাও বিধানসভায় গান গেয়েছেন। এতে বিধানসভার কৌলিন্য় নষ্ট হয় না। এরপরই স্পিকারের কাছ থেকে অভয় পেয়ে গলা ছেড়ে গান গাইলেন বাবুল, আমার মন বলে চাই.. চাই গো…।

বন্ধ করুন