বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > পরের সপ্তাহে কলকাতায় ৫ দিন বন্ধ থাকবে মদের দোকান
সুরাপ্রেমীদের জন্য দুঃসংবাদ, উপনির্বাচনের সময় ৫ দিন ধরে বন্ধ থাকবে শহরের মদের দোকান(ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই) 
সুরাপ্রেমীদের জন্য দুঃসংবাদ, উপনির্বাচনের সময় ৫ দিন ধরে বন্ধ থাকবে শহরের মদের দোকান(ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই) 

পরের সপ্তাহে কলকাতায় ৫ দিন বন্ধ থাকবে মদের দোকান

নির্বাচন কমিশনের নির্দেশের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য আবগারি দফতর

মন ভাঙল সূরাপ্রেমীদের। উপনির্বাচনের সময় মিলবে না রসদ। কারণ, ৫ দিন ধরে বন্ধ থাকবে শহরের সমস্ত মদের দোকান। এমনটাই নির্দেশ নির্বাচন কমিশনের। আর কমিশনের নির্দেশের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য আবগারি দফতর। তবে এই সিদ্ধান্ত নতুন কিছু নয়। ভোটের দিন মদের দোকান বন্ধ রাখা হয়।

ভবানীপুরে উপনির্বাচনের কারণে চলতি মাসের শেষ থেকে শুরু করে পরের মাসের প্রথম দিক পর্যন্ত শহর কলকাতায় মোট পাঁচ দিন ধরে বন্ধ থাকবে সমস্ত মদের দোকান। এমনকী, পানশালাতেও মদ সরবরাহ কিংবা বিক্রি করা যাবে না।

ভবানীপুরের উপনির্বাচন হবে ৩০ সেপ্টেম্বর। সে ক্ষেত্রে রাজ্যের আবগারি দফতর সিদ্ধান্ত নিয়েছে, ২৮, ২৯ ও ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মদের দোকান বন্ধ রাখা হবে। ২ অক্টোবর মহাত্মা গান্ধীর জন্ম দিবস উপলক্ষ্যে এমনিতেই বন্ধ থাকবে মদের দোকান। আবার ৩ তারিখে উপনির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হবে সেদিনও কলকাতার সমস্ত মদের দোকান বন্ধ থাকবে। অর্থাৎ শুধু ১ অক্টোবর খোলা থাকবে মদের দোকান।

তবে অনেকেই বলছেন, যতদিন পর্যন্ত মদের দোকান না খুলছে, ততদিন তাঁদের কোনও অভাব হবে না। কারণ, তাঁরা আগেভাগেই ৫ দিনের মতো মদের স্টক তুলে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

অন্য দিকে, রাজ্যের তরফে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে তিন দিন আবার অক্টোবরে পরপর দু'দিন মদের দোকান বন্ধ রাখা হবে।

অবশ্য রাজ্যের এই সিদ্ধান্তে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মদ বিক্রেতাদের একাংশ। তাঁদের বক্তব্য, পরপর এতদিন দোকান বন্ধ থাকলে, ব্যবসায় ক্ষতিগ্রস্থ হবেন তাঁরাই।

 

বন্ধ করুন