বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মুখ্যমন্ত্রীর অপদার্থতায় ২টো তরতাজা ছেলেকে হারালাম: সুকান্ত মজুমদার
সাংবাদিক বৈঠকে সুকান্ত মজুমদার

মুখ্যমন্ত্রীর অপদার্থতায় ২টো তরতাজা ছেলেকে হারালাম: সুকান্ত মজুমদার

  • সুকান্তবাবু বলেন, 'বারবার তারা পুলিশের মাধ্যমে ছেলেগুলোকে উদ্ধার করার চেষ্টা করেছে। কিন্তু পুলিশের অপদার্থতার জন্য ও মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী, যিনি পুলিশমন্ত্রী তাঁর অপদার্থতার জন্য ২টো তরতাজা প্রাণকে আমরা ১৬ – ১৭ বছর বয়সে আমরা হারালাম’।

বাগুইআটিতে ২ কিশোরের অপহরণ ও মৃত্যুর ঘটনার জন্য দায়ী মুখ্যমন্ত্রীর অপদার্থতা। এমনই দাবি করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। মঙ্গলবার রাতে তিনি নিহত অতনু দে-র বাড়িতে যাওয়ার চেষ্টা করলে তৃণমূলের বাধার মুখে পড়েন। যার জেরে ফিরে আসতে হয় তাঁকে। এর পরই মুখ্যমন্ত্রী তথা শাসকদলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন তিনি।

এদিন সুকান্তবাবু বলেন, ‘দুটো মৃত্যু অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। পরিবার তৃণমূলকেই ভোট দেয়। মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার চেষ্টা করেছে। পুলিশের কাছে গেছে। পুলিশ মিডিয়াকে জানাতে বারণ করেছে বলে তারা মিডিয়াকে জানাননি। বারবার তারা পুলিশের মাধ্যমে ছেলেগুলোকে উদ্ধার করার চেষ্টা করেছে। কিন্তু পুলিশের অপদার্থতার জন্য ও মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী, যিনি পুলিশমন্ত্রী তাঁর অপদার্থতার জন্য ২টো তরতাজা প্রাণকে আমরা ১৬ – ১৭ বছর বয়সে আমরা হারালাম’।

মোবাইলের একটি সতর্কবার্তা! সেটিই একটি গোটা শহরকে অন্ধকার হওয়া থেকে বাঁচিয়ে দিল

তাঁর দাবি, ‘পরিবার চাইছিল আমার সঙ্গে কথা বলতে। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে সেখানকার কাউন্সিলর ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে সেখানকার ভাড়া করা গুন্ডারা মিলে আমাকে সেখানে ঢুকতে দেয়নি’।

বাগুইআটিতে ২ কিশোরের মৃত্যুতে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে সিবিআই তদন্ত দাবি করেছে পরিবার। এই ঘটনায় বাগুইআটি থানার কাছে রিপোর্ট চেয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের DG মনোজ মালব্য।

 

বন্ধ করুন