বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'বৈশাখী শোভন বন্দ্যোপাধ্যায়', শোভনকে নিজের সঙ্গে জুড়ে নিলেন বৈশাখী
 (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)
 (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)

'বৈশাখী শোভন বন্দ্যোপাধ্যায়', শোভনকে নিজের সঙ্গে জুড়ে নিলেন বৈশাখী

  • বৈশাখীর দাবি, শোভনের অনুমতি নিয়েই নিজের নামের সঙ্গে তাঁর নাম জুড়ে দিয়েছেন তিনি।

‌বঙ্গ রাজনীতিতে সাম্প্রতিককালে কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের কথা উঠলেই অবধারিতভাবে উঠে আসে তাঁর ঘনিষ্ঠ বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামও। এবার নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে নিজের নামের সঙ্গে শোভনের নাম জুড়ে নিলেন বৈশাখী। ফেসবুক প্রোফাইলে এখন নতুন নাম বৈশাখী শোভন বন্দ্যোপাধ্যায়। শোভন ঘনিষ্ঠ বৈশাখীর দাবি, শোভনের অনুমতি নিয়েই নিজের নামের সঙ্গে তাঁর নাম জুড়ে দিয়েছেন তিনি। শোভনের তৃণমূলে ফেরার সম্ভাবনা যেমন সম্প্রতি উজ্জ্বল হয়ে উঠেছে, রাজ্য রাজনীতিতে এখন আলোচনার বিষয়বস্তুও হয়ে উঠেছে নতুন এই ফেসবুক প্রোফাইলও।

সম্প্রতি তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে গিয়ে তাঁর সঙ্গে দেখা করে আসেন শোভন–বৈশাখী। পার্থের সঙ্গে দেখা করে বেরোনোর পর বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখে তৃণমূল নেত্রীর প্রশংসা ও সেইসঙ্গে শোভনের সঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পর্ক যে পারিবারিক সেই কথাও শোনা যায়।এরপর থেকেই শোভনের তৃণমূলে ফেরা রাজনৈতিক মহলে জোর গুঞ্জন শুরু হয়ে যায়। এরইমধ্যে শোভন–বৈশাখীকে যৌথ সাংবাদিক বৈঠক করে শোভনের স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়ের সমালোচনা করতেও দেখা যায় ।ফেসবুক লাইভে শোভন চট্টোপাধ্যায় স্পষ্ট অভিযোগ তোলেন, রত্না চট্টোপাধ্যায় একজন ব্যভিচারী মহিলা। আর এই আচরণের জন্যই ডিভোর্সের আবেদন জানিয়েছেন তিনি। তাঁর দাবি, রত্না চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে অন্য যুবকের বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক আছে।

এখানেই থেমে থাকেননি শোভন, তাঁর ঘনিষ্ঠ বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ও রত্না চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন। যদিও তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন রত্না।তিনি জানান, দলীয় কর্মীদের সঙ্গে বসে থাকার ছবি দিয়ে বলছে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক।বেহালা এলাকায় বসে যে কাউকে জিজ্ঞাসা করুক, সকলে বলে দেবে এরা কারা। আসলে শোভন–বৈশাখী প্রেম লীলা চালাচ্ছেন, তা দেখে বাংলার মানুষ নিন্দা করছেন দেখেই এখন অন্য চাল দিচ্ছেন।

বন্ধ করুন