বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কুৎসা না করে বিরোধী দলনেতার মতো আচরণ করুন, চেয়ারে বসেই অভিষেকের নিশানায় শুভেন্দু
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (ফাইল ছবি)
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (ফাইল ছবি)

কুৎসা না করে বিরোধী দলনেতার মতো আচরণ করুন, চেয়ারে বসেই অভিষেকের নিশানায় শুভেন্দু

  • 'সেকেন্ড ইন কমান্ডার বলে দলে কিছু নেই। একজনই কমান্ডার দলে, তিনি হলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।' নিজের অবস্থান স্পষ্ট করে দিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় 

সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকের চেয়ারে বসেছেন সবে ৪৮ ঘণ্টা হয়েছে। এরপর সোমবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েই নাম না করে সরাসরি বিরোধী দলনেতা তথা বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু আধিকারীকে নিশানা করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন সরাসরি তিনি জানিয়ে দেন, ‘ বিরোধী দলনেতাকে অনুরোধ করছি গঠনমূলক আলোচনায় অংশগ্রহণ করুন। আপানাদের যে একতরফা কুৎসামূলক প্রচার, শুনলাম ৪০ লক্ষ বাঙালি বাইরে থাকে। এর পরিণতি ভয়ঙ্কর হতে পারে। তল্পিবাহকতা করতে গিয়ে, বশ্যতা স্বীকার করতে গিয়ে এরা এতটা নীচে নেমেছে যে বলছে ৪০ লক্ষ বাঙালি বাইরে থাকেন, বিজেপি শাসিত রাজ্যে থাকেন, এই সব কথা চলে না। আমি তাঁকে অনুরোধ করব গঠনমূলক আলোচনায় অংশ নিন।বিরোধী দলনেতা হিসাবে বিরোধী দলনেতার যে কাজ সেটা করুন, কুৎসা না করে।’ 

পাশাপাশি ইদানিং অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে নানা মহল থেকে সেকেন্ড ম্যান হিসাবে তুলে ধরা হচ্ছে। সেই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘তৃণমূলে কোনও সেকেন্ড ইন কম্যান্ডার বলে কিছু নেই। এখানে একজনই কমান্ডার রয়েছেন, তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাকিরা সকলেই কর্মী।’ সাংবাদিক বৈঠকে এভাবেই নিজের অবস্থান স্পষ্ট করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজনৈতিক মহলের মতে, আগামী দিনে বিধানসভার ভেতরে ও বাইরে বিজেপির বিরুদ্ধে অলআউট রাজনৈতিক আক্রমণে যে কোনওভাবে তৃণমূল পিছুপা হবে না সেটাও এদিন বুঝিয়ে দেন তিনি। পাশাপাশি নির্বাচনের আগে তৃণমূলকে বেকায়দায় ফেলতে এজেন্সিকে কাজে লাগানো হয়েছিল বলেও অভিযোগ তোলেন তিনি। এর সঙ্গেই কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়েও ফের আরও একবার প্রশ্ন তুললেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

 

বন্ধ করুন