বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > পারিবারিক রোষের শিকার বেলেঘাটা আইডি–র স্বাস্থ্যকর্মী, তদন্তে পুলিশ
ছবি : প্রতীকী
ছবি : প্রতীকী

পারিবারিক রোষের শিকার বেলেঘাটা আইডি–র স্বাস্থ্যকর্মী, তদন্তে পুলিশ

  • জল ও বিদ্যুতের সংযোগ কেটে দেওয়ার চেষ্টা করেছে স্বাস্থ্যকর্মীর শ্বশুরবাড়ির লোকজন। তাঁর দুই নাবালিকা মেয়ের স্নানের ভিডিও তুলে প্রতিবেশীদের দেখানো হচ্ছে।

বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের এক অস্থায়ী কর্মীর ওপর দিনের পর দিন চলছে অত্যাচার। বৃহস্পতিবার নরেন্দ্রপুর থানায় শাশুড়ি, ভাসুর, জা ও ননদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করলেন স্বাস্থ্যকর্মী টুম্পা মণ্ডল। অভিযোগে তিনি জানান, পরপর দুটি কন্যাসন্তান হওয়ার কারণে দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে তাঁর ওপর অত্যাচার চালাচ্ছে শ্বশুরবাড়ির লোকজন। করোনা আবহে সেই অত্যাচার আরও বেড়েছে। কারণ, তিনি স্বাস্থ্যকর্মী এবং একেবারে সামনের সারিতে দাঁড়িয়ে করোনা আক্রান্তদের সেবায় কাজ করে চলেছেন।

নরেন্দ্রপুরের ফরদাবাদের বাসিন্দা টুম্পাদেবী আরও জানিয়েছেন, ইদানিং তাঁদের মারধর করার পাশাপাশি বাড়ি ছেড়ে দেওয়ার জন্য চাপও দেওয়া হচ্ছে। শুধু তাই নয়, জল ও বিদ্যুতের সংযোগ কেটে দেওয়ার চেষ্টা করেছে তাঁর শ্বশুরবাড়ির লোকজন। পুলিশের কাছে তাঁর আরও গুরুতর অভিযোগ, টুম্পাদেবী ও তাঁর দুই নাবালিকা মেয়ের স্নানের ভিডিও তুলে প্রতিবেশীদের দেখানো হচ্ছে।

এ ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিশ। পুলিশ জানায়, এই পারিবারিক সমস্যা দীর্ঘদিনের। টুম্পা মণ্ডল এর আগেও এ ব্যাপারে অভিযোগ জানিয়েছিলেন। অশ্লীল ভিডিও এলাকায় ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ প্রমাণিত হলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বন্ধ করুন