বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বাবুল কবে রাজনীতি করলেন যে ছেড়ে দেওয়ার কথা বলছেন : দিলীপ
বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (HT_PRINT)
বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (HT_PRINT)

বাবুল কবে রাজনীতি করলেন যে ছেড়ে দেওয়ার কথা বলছেন : দিলীপ

দিলীপ ঘনিষ্ঠ এক নেতা জানিয়েছেন, ভোট পরবর্তী সন্ত্রাসের সময়ে ওকে তো কর্মীদের পাশে দেখা যায়নি।

বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়কে আক্রমণ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় রাজনীতি ছেড়ে দেওয়ার কথা বললেও তাঁকেই ফের নিশানা করেছেন দিলীপ। তাঁর কথায়, বাবুলের মুখে রাজনৈতিক জ্ঞান মানায় না। উনি রাজনীতি কবে করলেন যে রাজনীতি ছেড়ে দেওয়ার কথা বলছেন।

বাবুল রাজনীতি থেকে সরে এলেও দলে থাকাকালীন তাঁর ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছে দিলীপ ঘোষ ঘনিষ্ঠরা। গত বিধানসভা নির্বাচনে বাবুলকে বিজেপি প্রার্থী করেছিল টালিগঞ্জে। কিন্তু টালিগঞ্জে বাবুল হেরে যান। সেইসঙ্গে বাবুলের নিজের লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যে আসানসোল দক্ষিণ ও কুলটি ছাড়া কোথাও বিজেপি জেতেনি। এই পরিপ্রেক্ষিতে দিলীপ ঘনিষ্ঠরা প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন, বাবুল সুপ্রিয় তো ভালো প্রার্থী ছিলেন। তাহলে উনি টালিগঞ্জে হারলেন কেন?‌ নিজের লোকসভা কেন্দ্রে কি বাবুল ঠিকমতো দায়িত্ব পালন করতে পেরেছেন?‌ মানুষের সঙ্গে উনি মন্ত্রী হিসেবে মিশেছেন। কিন্তু কর্মীদের কাছে তিনি নেতা হতে পারেননি। এই প্রসঙ্গে দিলীপ ঘনিষ্ঠ এক নেতা জানিয়েছেন, ভোট পরবর্তী সন্ত্রাসের সময়ে ওকে তো কর্মীদের পাশে দেখা যায়নি। উনি দলের একমাত্র সাংসদ ছিলেন, যার নামে দলের কর্মীরা নিরুদ্দেশ পোস্টার লাগিয়েছিল।

এর আগেও বাবুল সুপ্রিয়কে আক্রমণ করেছিলেন দিলীপ ঘোষ। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের অসন্তোষের কথা বার বার জানিয়েছিলেন বাবুল সুপ্রিয়। তবে তিনি অন্য দলে যাচ্ছেন কিনা, তা নিয়ে কিছুটা হলেও ধোঁয়াশা রাখেন তিনি। প্রথমে অন্য দলে যাওয়ার ব্যাপারে নিজের অপছন্দের কথা জানালেও পরে এই বিষয়ে কিছুটা অস্পষ্টতা রেখে দেন তিনি। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, সেই কারণেই বাবুলকে দিলীপ নিজের নিশানাতেই রেখেছেন।

বন্ধ করুন