বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > ইমামদের সমান হারে ভাতা দেওয়া উচিত ব্রাহ্মণদের, দাবি ইমাম সংগঠেনর প্রধানের
মহম্মদ ইয়াহিয়া। ফাইল ছবি
মহম্মদ ইয়াহিয়া। ফাইল ছবি

ইমামদের সমান হারে ভাতা দেওয়া উচিত ব্রাহ্মণদের, দাবি ইমাম সংগঠেনর প্রধানের

  • 'প্রশ্ন ওঠে হিন্দু ভোট কংগ্রেস আর বিজেপির পৈত্রিক সম্পত্তি নাকি? তণমূলের হিন্দু ভোট পাওয়ার অধিকার নেই?’, মহম্মদ ইয়াহিয়া

তন্ময় চট্টোপাধ্যায়

ব্রাহ্মণ ভাতা নিয়ে রাজ্য সরকারের পাশেই দাঁড়াল ইমামদের সংগঠন। এই নিয়ে রাজনৈতিক বিতর্কের মধ্যে বেঙ্গল ইমামস অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান মহম্মদ ইয়াহিয়ার দাবি, ১,০০০ টাকায় আজকালকার দিনে কী হয়? পুরোহিতদের ইমামদের সমান হারে ভাতা দেওয়া উচিত। 

মঙ্গলবার হিন্দুস্তান টাইমসকে মহম্মদ ইয়াহিয়া বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী যে প্রকল্প ঘোষণা করেছেন তা নিছকই জনকল্যাণের কথা মাথায় রেখে। কারণ, সব হিন্দু তো আর পুরোহিত নয়। আর যদি তর্কের খাতিরে ধরেও নেওয়া হয় তিনি হিন্দু ভোট নিশ্চিত করতে এই পদক্ষেপ করেছেন, তাহলে প্রশ্ন ওঠে হিন্দু ভোট কংগ্রেস আর বিজেপির পৈত্রিক সম্পত্তি নাকি? তণমূলের হিন্দু ভোট পাওয়ার অধিকার নেই?’

সঙ্গে ইমামদের সংগঠনের প্রধানের দাবি, ‘১০০০ টাকাটা খুবই সামান্য অনুদান। পুরোহিত ও ইমামদের সমান হারে ভাতা পাওয়া উচিত।’

বলে রাখি, গত সোমবার নবান্ন থেকে ব্রাহ্মণ ভাতা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জানান, রাজ্যের ৮,০০০ পুরোহিতকে মাসে ১,০০০ টাকা করে ভাতা দেবে রাজ্য সরকার। সঙ্গে গৃহহীন পুরোহিতদের আবাস যোজনায় ঘর বানিয়ে দেবে রাজ্য। মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে তুমুল সমালোচনা শুরু হয়েছে। বিরোধীদের দাবি, ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগে টাকা দিয়ে হিন্দুদের ভোট কিনতে চাইছেন মমতা।

২০১১ সালে ক্ষমতায় আসার ১ বছর পর রাজ্যের মসজিদগুলির ইমামদের জন্য ভাতা চালু করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই থেকে মাসিক ২,৫০০ টাকা করে ভাতা পান ইমামরা। 

বন্ধ করুন