বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Exclusive: বিচারপতির বিচার্য বিষয় বদলানোর দাবি আদালত অবমাননার সামিল: বিকাশরঞ্জন
বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য।

Exclusive: বিচারপতির বিচার্য বিষয় বদলানোর দাবি আদালত অবমাননার সামিল: বিকাশরঞ্জন

  • বিকাশবাবুর কথায়, ‘আদালতের প্রশাসনিক বিষয়ে হস্তক্ষেপের বারের কোনও এক্তিয়ার নেই। এই ভাবে বিচারপতিদের বিরোধিতা করে আসলে আইনজীবীদের সম্মানহানি করা হচ্ছে। কলকাতা হাইকোর্ট দেশের সব থেকে পুরনো হাইকোর্ট। আজ পর্যন্ত এখানে এরকম ঘটনার নজির নেই।

কলকাতা হাইকোর্টের একের পর এক বিচারপতির বিচার্য বিষয় বদল চেয়ে বার অ্যাসোসিয়েশনের আবেদনের তীব্র বিরোধিতা করলেন রাজ্যসভার সাংসদ তথা আইনজীবী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় হিন্দুস্তান টাইমস বাংলাকে এব্যাপারে তাঁর অসন্তোষের কথা জানান বিকাশবাবু। তিনি জানান, এই কাজ করে আসলে নিজেদের পায়ে নিজেরা কুড়ুল মারছেন ওই আইনজীবীরা।

বিকাশবাবুর কথায়, ‘আদালতের প্রশাসনিক বিষয়ে হস্তক্ষেপের বারের কোনও এক্তিয়ার নেই। এই ভাবে বিচারপতিদের বিরোধিতা করে আসলে আইনজীবীদের সম্মানহানি করা হচ্ছে। কলকাতা হাইকোর্ট দেশের সব থেকে পুরনো হাইকোর্ট। আজ পর্যন্ত এখানে এরকম ঘটনার নজির নেই। বহু বিতর্ক হয়েছে। আমরাও বহু মামলা হেরেছি। কিন্তু বিচারব্যবস্থার স্বাধিকারে হস্তক্ষেপের কথা মাথায় আসেনি। বিচারপতির বিচার্য বিষয় বদলের আবেদন আদালত অবমাননার সামিল।

চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা, দিলীপের মঞ্চ থেকে BJP নেত্রীকে নামিয়ে পেটাল জনতা

তিনি আরও বলেন, প্রচুর কাঠখড় পুড়িয়ে একজন বিচারপতি হতে হয়। যাঁরা প্রধান বিচারপতির সিদ্ধান্তে অখুশি বিচারব্যবস্থার প্রতি তাদের আস্থা নিয়ে প্রশ্ন উঠে যায়।

তবে কি এই ধরণের আবেদনের সক্রিয় বিরোধিতা করবেন তিনি? বিকাশবাবু বলেন, বিচারপতিরা নির্বিঘ্নে, নির্ভয়ে কাজ করবেন সেটাই কাম্য। আইনজীবীরা তাদের সামনে আইনি ভাষায় মক্কেলের বক্তব্য তুলে ধরবেন। যদি সেই ব্যবস্থা কোনও ভাবে প্রভাবিত হয় তাহলে তো রুখে দাঁড়াতে হবেই।

বলে রাখি, সম্প্রতি শুভেন্দু অধিকারীর পরিবারের অন্তত একটি মামলার আইনজীবী ছিলেন বিকাশবাবু।

 

বন্ধ করুন