বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বারবার অবস্থান বদল করে নিজের বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়েছেন গুরুং: সুজন
বাঁ দিকে সুজন চক্রবর্তী। ডান দিকে বুধবারের সাংবাদিক বৈঠকে বিমল গুরুং।
বাঁ দিকে সুজন চক্রবর্তী। ডান দিকে বুধবারের সাংবাদিক বৈঠকে বিমল গুরুং।

বারবার অবস্থান বদল করে নিজের বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়েছেন গুরুং: সুজন

  • সুজনবাবু বলেন, ‘বারবার পক্ষ বদল করে নিজের বিশ্বাসযোগ্যতা তলানিতে নিয়ে গিয়েছেন গুরুং। পাহাড়ের পরিশ্রমি শান্তিপ্রিয় মানুষ শান্তিতে বাঁচতে চান। সেজন্য সিপিএম সাংবিধানিক এক্তিয়ারের মধ্যে সর্বোচ স্বায়ত্বশাসনে বিশ্বাস করে।

গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা নেতা বিমল গুরুংয়ের ভোলবদলকে কটাক্ষ করলেন সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী। সঙ্গে জানালেন, সাংবিধানিক আওতার মধ্যে পাহাড়ের সর্বোচ্চ স্বশাসনের পক্ষে সিপিআইএম। 

বুধবারই বিজেপির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে তৃণমূলের প্রতি বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়েছেন দেশদ্রোহিতায় অভিযুক্ত মোর্চা নেতা বিমল গুরুং। তার পরই রাজ্য রাজনীতিতে শুরু হয়েছে নতুন জল্পনা। এদিন এপ্রসঙ্গে সুজনবাবু বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্তুতিগান করার আগে বিমল গুরুংকে এটা বলতে হবে ৩ বছর কার জন্য তাঁকে আত্মগোপন করে থাকতে হয়েছে? কেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গ ছেড়েছিলেন তিনি?’ 

সুজনবাবু বলেন, ‘বারবার পক্ষ বদল করে নিজের বিশ্বাসযোগ্যতা তলানিতে নিয়ে গিয়েছেন গুরুং। পাহাড়ের পরিশ্রমি শান্তিপ্রিয় মানুষ শান্তিতে বাঁচতে চান। সেজন্য সিপিএম সাংবিধানিক এক্তিয়ারের মধ্যে সর্বোচ স্বায়ত্বশাসনে বিশ্বাস করে। এবং সেটাই হবে পাহাড় সমস্যার স্থায়ী সমাধান।’

বুধবার বিকেলে এক সাংবাদিক বৈঠক করে বিমল গুরুং বলেন, বারবার প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করেছেন নরেন্দ্র মোদী ও অমিত শাহ। উলটো দিকে তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সমস্ত প্রতিশ্রুতি পালন করেছেন। তাই আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসরকে সমর্থন করবেন তিনি। গুরুং এদিন বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তৃতীয় বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী দেখতে চাই। 

 

বন্ধ করুন