বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > নেতাজির বিরোধীরাই আজ তাঁর বড় দরদী হয়ে উঠেছেন: শমীক ভট্টাচার্য
নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু।

নেতাজির বিরোধীরাই আজ তাঁর বড় দরদী হয়ে উঠেছেন: শমীক ভট্টাচার্য

  • তিনি বলেন, নেতাজি শুধু বাংলার একার নন। নেতাজি গোটা দেশের। ১২৫তম জন্মদিনে নেতাজিকে যথার্থ সম্মান জানানোর ব্যবস্থা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার।

প্রজাতন্ত্র দিবসের ট্যাবলো বিতর্কে এবার একযোগে কংগ্রেস, তৃণমূল ও সিপিএমকে বিঁধলেন বিজেপি মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য। মঙ্গলবার দলের রাজ্য সদর দফতরে সাংবাদিক বৈঠক করে তিনি বলেন, ‘নেতাজি সারা দেশের। তাঁকে বাঙালি প্রমাণ করতে নোংরা রাজনীতি করছে বিরোধীরা।’

এদিন নেতাজি নিয়ে কংগ্রেসকে তুমুল আক্রমণ করেন শমীকবাবু। বলেন, নেতাজি বাংলার ভোটে কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচিত হননি। তিনি পঞ্জাব ও মহারাষ্ট্রের ভোটে কংগ্রেস সভাপতি হয়েছিলেন। স্বাধীনতার আগে ও পরে নেতাজির ইতিহাস ভোলানোর চেষ্টা করেছে কংগ্রেস। স্বাধীনতার পরও ৬ দশক তারা নেতাজির পরিবারের সদস্যদের ওপর নজরদারি চালিয়েছে। সেই কংগ্রেসের ঐতিহ্য নিয়ে গঠিত তৃণমূল আজ নেতাজি দরদী হয়ে উঠেছে।

তিনি বলেন, নেতাজি শুধু বাংলার একার নন। নেতাজি গোটা দেশের। ১২৫তম জন্মদিনে নেতাজিকে যথার্থ সম্মান জানানোর ব্যবস্থা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। তাঁর জন্মদিন পালনের জন্য প্রজাতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠান এক দিন এগিয়ে আনার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তার পরও নেতাজিকে নিয়ে নোংরা রাজনীতি করছে বিরোধীরা।

শমীকবাবুর প্রশ্ন, প্রজাতন্ত্র দিবসের ট্যাবলো নির্বাচনের জন্য প্রতিটি বিভাগের বিশেষজ্ঞদের দিয়ে তৈরি কমিটি রয়েছে। তারা এর আগে একাধিকবার পশ্চিমবঙ্গের ট্যাবলোকে অনুমতি দিয়েছে। তাহলে বিতর্ক হচ্ছে কেন?

তিনি জানান, নেতাজির সঙ্গে শ্যামাপ্রসাদের বিরোধ থাকলেও তিনি কখনো নেতা সম্পর্কে কোনও কু কথা বলেননি। 

 

বন্ধ করুন