বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > তথাগত রায়কে দিল্লিতে ডেকে পাঠাল কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব, ‘‌নগরের–নটী’‌ মন্তব্যে তলব
তথাগত রায় (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
তথাগত রায় (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

তথাগত রায়কে দিল্লিতে ডেকে পাঠাল কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব, ‘‌নগরের–নটী’‌ মন্তব্যে তলব

  • এবার তার জেরে তথাগত রায়কে দিল্লিতে তলব করেছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব।

বাংলার নির্বাচনে বিজেপির পরাজয়ের জন্য রাজ্য নেতৃত্বকে তুলোধনা করে একাধিক টুইট করেছেন বর্ষীয়ান নেতা তথাগত রায়। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য টুইট হল– ‘নগরের নটী’। এই মন্তব্য করে তিনি বিতর্কের সৃষ্টি করেছেন। আসলে রূপোলি পর্দার নায়ক–নায়িকাদের প্রার্থী করা নিয়ে সরব হয়েছিলেন তিনি। এবার তার জেরে তথাগত রায়কে দিল্লিতে তলব করেছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। বৃহস্পতিবার নিজেই টুইট করে তথাগত লিখেছেন, ‘আমাকে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের পক্ষ থেকে দ্রুত দিল্লি আসতে বলা হয়েছে। এটা সাধারণ তথ্য হিসেবে জানানো হল’।

কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব যে তথাগত রায়ের সঙ্গে খোশ–গল্প করতে তাঁকে ডাকেননি তা এককথায় পরিষ্কার। মুখে কিছু না বললেও সূত্রের খবর, ক্রমাগত আক্রমণাত্মক টুইটের কারণেই তাঁকে ডেকে পাঠানো হয়েছে। একুশের নির্বাচনে বিজেপির ভরাডুবির পর দলের প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি তথাগত রায় টুইটারে দলের চিত্রতারকা প্রার্থীদের বিরুদ্ধে সরব হন। তিনি লেখেন, ‘পায়েল–শ্রাবন্তী–পার্নো ইত্যাদি ‘নগরীর নটীরা’ নির্বাচনের টাকা নিয়ে কেলি করে বেড়িয়েছেন। মদন মিত্রের সঙ্গে নৌকাবিলাসে গিয়ে সেলফি তুলেছেন। তাঁদেরকে টিকিট দিয়েছিল কে? কেন দেওয়া হয়েছিল? দিলীপ–কৈলাস–শিবপ্রকাশ–অরবিন্দ প্রভুরা একটু আলোকপাত করবেন কি’?‌ আর এই মন্তব্যে বেজায় চটেছেন বঙ্গ বিজেপির নেতারা থেকে কেন্দ্রীয় নেতারা। একেই হেরে ব্যাকফুটে গিয়েছে বিজেপি। তার উপর এমন সব টুইট করলে দলের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে বলে রাজ্য নেতৃত্ব নালিশ ঠুকেছে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে বলে সূত্রের খবর।

আর এই নালিশের প্রেক্ষিতেই এখন তথাগতর দিল্লি সফর। তথাগতের টুইটের পরেই তনুশ্রী ‘নগরের নটী’ মন্তব্যের প্রতিবাদ করে জানান, বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের পাশাপাশি নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহের কাছেও তিনি অভিযোগ জানাবেন। সেই অভিযোগ জানানোর পরই বৃহস্পতিবার তথাগতর ডাক পড়ল ‘রাজধানীর দরবারে’। সেখানে তাঁর কাছ থেকে এই মন্তব্যের কারণ জানতে চাওয়া হবে। তাতে যদি সন্তুষ্ট না হন কেন্দ্রীয় নেতারা তাঁকে শো–কজ করতে পারেন। কিন্তু কি হবে তা আঁচ করতে পারছেন না তথাগত। তাই আগাম সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের যাত্রা সম্পর্কে জানিয়ে রাখলেন প্রাক্তন মেঘালয়ের রাজ্যপাল বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

বন্ধ করুন