বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > দুর্গাপুজো করল BJP,রাজ্য সভাপতির পদ যাওয়ার পর কেদারনাথে ছুটি' কাটাচ্ছেন দিলীপের
দিলীপ ঘোষ।
দিলীপ ঘোষ।

দুর্গাপুজো করল BJP,রাজ্য সভাপতির পদ যাওয়ার পর কেদারনাথে ছুটি' কাটাচ্ছেন দিলীপের

গত বছর বিধানসভা ভোটের আগে ধুমধাম করে ইজেডসিসিতে দুর্গাপুজোর আয়োজন শুরু হয়েছিল। সেই পুজোর মূল উদ্যোক্তাদের মধ্যে ছিলেন মুকুল রায় ও কৈলাস বিজয়বর্গীয়।

‌সল্টলেকের ইজেডসিসিতে গত বছর থেকেই শুরু হয়েছিল দুর্গাপুজো, যা বিজেপির উদ্যোগে আয়োজিত পুজো বলে পরিচিত। তবে এই দুর্গাপুজো থেকে অনেকটাই দূরে রয়েছেন রাজ্য বিজেপির প্রাক্তন সভাপতি দিলীপ ঘোষ। পুজোর সময় তিনি কাটাচ্ছেন কেদারনাথে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করে নিজেই সেই কথা জানিয়েছেন।

কেদারনাথে ঘুরতে যাওয়ার বিভিন্ন ছবি পোস্ট করে দিলীপ সোশ্যাল মিডিয়ায় লেখেন, ‘‌১২ জ্যোতির্লিঙ্গের মধ্যে পঞ্চপাণ্ডব দ্বারা প্রতিষ্ঠিত সর্বোচ্চ জ্যোতির্লিঙ্গ তথা হিন্দুদের পবিত্র মন্দির কেদারনাথে প্রতি বছর লক্ষ লক্ষ দর্শনার্থী ছুটে আসেন। পঞ্চধামের প্রথম ধর্মস্থানে এসে নিজেকে ধন্য মনে করছি।’‌

কিছুদিন আগেই রাজ্য বিজেপি সভাপতি পদ থেকে অব্যাহতি পেয়েছেন দিলীপ। তাঁকে এবারে বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়। রাজ্য বিজেপির সভাপতি পদে দিলীপে পছন্দের বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদারকে বসানো হয়। তবে এখনও রাজ্য রাজনীতিতে যথেষ্টই সক্রিয় দিলীপবাবু। বিজেপির উদ্যোগে যেখানে ইজেডসিসিতে দুর্গাপুজোর আয়োজন হয়েছে, সেখানে দিলীপের অনুপস্থিতি তাৎপর্যপূর্ণ ঘটনা বলেই মনে করা হচ্ছে।

গত বছর বিধানসভা ভোটের আগে ধুমধাম করে ইজেডসিসিতে দুর্গাপুজোর আয়োজন শুরু হয়েছিল। সেই পুজোর মূল উদ্যোক্তাদের মধ্যে ছিলেন মুকুল রায় ও কৈলাস বিজয়বর্গীয়। তবে দিলীপ যে দুর্গাপুজোর সঙ্গে খুব বেশি জড়িয়ে ছিলেন তেমনটা নয়। এবার যখন ইজেডসিসির পুজো হবে কী হবে না, তা নিয়ে কথা উঠেছিল, তখন দিলীপ জানিয়েছিলেন, বিজেপির তরফ থেকে কোনও পুজো হয় না। যাঁরা বিজেপির সমর্থক বা কর্মী, তাঁদের উদ্যোগে পুজো হয়। সেক্ষেত্রে ছোটো করে হলঘরের মধ্যে পুজো হতে পারে। যারা গতবছর পুজো শুরু করেছিলেন, তাঁদের চিন্তাভাবনা করা প্রয়োজন ছিল। দিলীপের কথা থেকেই স্পষ্ট ছিল, যাঁরা পুজো শুরু করেছিলেন, পুজো চালিয়ে নিয়ে যাওয়ার দায়িত্ব তাঁদেরই। তবে এই বছর দিলীপ না থাকলেও ছোটো করেই পুজো হয়েছে ইজেডসিসিতে।

বন্ধ করুন